পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৪০৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রাধামোহন সেন । মালকোঁশ—আড়াতেতাল।। শুধু নয়ন শ্রবণ থাকিলে কি হয় । মন যার –নাহি তীর, ওলে সইচরি! কিছুই কিছু নয় ॥ শরীরে কি সংজ্ঞ আছে,মনে যে নাথের কাছে, যে সংযোগে দেখি শুনি, সে যার নিদয় ॥ 初 মূল তাণী—অtড়াতে তালা । ওলো প্রাণসখি, নাথ আসিয়াছে বুঝি মোর কাছে। তানহিলে পুরে কেন, শীতল উজ্জ্বল হেন, তম হরিয়ছে। সেই সুমধুর স্বর, সেই নিশ্বাস শরীরে লাগিতেছে । পেয়ে সে অঙ্গের সাণ, ব্যাকুল আমার প্রাণ, আর হইয়াছে। কিন্তু না হেরি সে জন, নাহি পাই অন্বেষণ, ধরিতে ন পারি তাকে, উত্তর না দেয় ডাকে, লুকি রূপে আছে ৷ মূল ভাণি—আড়াতেতাল।। ওরে বিনেদিনি, কারে বল কান্ত, আইল বসন্তু, , হের শরীর কিরণ, ভাব নাথের আগমন, কেন হেন ভ্ৰস্ত ॥ শুন যে মধুর রব, কুহুরে কোকিল সব ঝঙ্কার করিছে যত অলিগণ,— ঘ হারে পবন মান, সে মলয় পবমান, বহে অবিশ্রাস্ত। প্রফুল্ল কুসুমচয়, অঙ্গের সৌরভ তাহা জ্ঞান কর, সেই ভাবনাতে রবে, সদাই ব্যাকুল তবে, কবে হবে শাস্ত ॥ ভৈরণী—একতাল।। মনের কথা, সই, এমন অরি— . না কহিলে মরি, তাহা কহিলেও মরি ॥ যদি না চাহি কহিতে, চাহি গোপনে রাখিতে, দহে হৃদি, অনলের তেজ সে ধরি ॥ শুনিতেছি নিরন্তর, । সুগন্ধে আমোদ হয়, । ס נ (ס\ কিঞ্চিৎ কহিতে যার, কি কব যাতন তার, রসন দহিয়া যায়, বল কি করি। মূলতলী—আড়াতে তাল । কেন ভুরূ-ধনু টান, হানিবে কি প্রাণ ? কুরঙ্গ বধিতে বুঝি, করিছ সন্ধান ॥ শুন হে তোমারে কহি, আমি তে কুরঙ্গ নহি, কেবল আমার বদনে, কুরঙ্গ-নয়ান ॥ ঝিঝিট-আড়াতে তালা । মনের নয়নে, ও সই, মঙ্গল আমারে । দেখিতে না চাহি যারে, সে দেখে তাহারে ॥ না হেরি যার বয়ান, না করি যাহার ধ্যান, সে জন উদয় সদা, মানস-আগারে ॥ মুলতান--অlড়াতে তালা । পড়িয়াছ রূপ-ফঁাদে, পিরীতি কাননে-১ বধিবে কি বিহঙ্গম কপট নিষাদে ? হায় রে আমার আঁখি, নৰ্ত্তক খঞ্জন পার্থী, বন্ধনে পড়িয়া আজি, গণিছে প্রমাদে ॥ পুরিয়া-ধানী –আড়াতে তালা । পুরুষ যেমন পারে, নারী কি তেমন ? সদা এক সনে নহে, প্রাণ, প্রেম- আলাপন ॥ নিদর্শন অলিকুলে, নাহি বসে এক ফুল, নবপ্রেম নিতি নিতি, নৃতন যতন ॥ ভৈধুৰী-আড়াতেতাল।। ভুলালে প্রথমে রূপে এ দুই নয়নে। বন্ধন করিল গুণে, ক্রমে ক্রমে মনে ॥ নহিলে মোহিত কেন, থাকিবে সদাই হেন ? করিল মোহন যোগে, আবৃত চেতন ॥ " ৰেহাগ—তেওট। যদি স্ববিষয়, প্রাণ, জানিতে পারিতে, পরেরে মজাইতে না । প্ৰেম-জনন সম্পদ, ও বিধুৰদনি,তব শরীরে উদয় সুশীলতা সুধীৰুতা, স্নেহ-করুণা মমত, ধে রূপ কিরূপে কব, দেখিলে বোধ সে হয় ॥