পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৪০৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রাধামোইন সেন । * SQ উঠিল| কমলাসন চঞ্চলতা বেশে, বিগুণের অগুণ গীত, কর বিরাগে মিলিত উপজিল মুখ-সিন্ধু সুধার আবেশে,—প্রাণ। তবে আর হবে না সে, রাগ মুক্তিমান ॥ উঠিল বিচ্ছেদ শেষে, বিষম বিষ-বিশেষে, விகற் து দহে শরীর-ভুবন ॥ গুণকলী –আড়াতে তালা। to jo কেও বুঝে ন সই, প্রেম-পরিচ্ছেদ । মালকোঁশ —ত্রিয়ট । সবে বলে গুমি সনে, করিতে বিচ্ছেদ ॥ BBB BBB BBS BBBS BBB BB BBSS S BBBBBB BB BBS BB BBBB BBS স্থলজ জলজ কুলুম-কনন মাঝে রাজধানী তঝু পাপ লোকে করে, অভেদে প্রভেদ ॥ инённаи}} শোভাকর শশধরে, শিথীগণে ছত্র ধরে, নৃত্য করে খঞ্জন, গুঞ্জরে গান গায় মধু মানি । মন্দ মলয় মারুত, হ’য়ে মন্দগতি দূত, নগরে নগরে, প্রতি স্বরে বরে, কহে এই বাণী ॥ । কি কুমন্ত্রী পঞ্চশর', কু-কোকিল নিশাচর, ফিরিতেছে বিরহ-ছল চাহিয়া, হয় কি না জানি ॥ _க _ গুণকালী-জাড়াতেতাল।। নয়ন সদাই ডকে রূপের ইঙ্গিত-বিধানে । কে বলে পলক পড়ে সই, পালট-প্রমাণে ॥ যে দিগে যখন চায়, শ্রাম-রূপ দেখিতে পায়, ইহাতে রূপের গতি, হুচঞ্চল মানে ॥ তাহে এই করে ভয়, পাছে রূপ অন্তর হয়, তেজে তেজ মিলিয়ছে, তাতে নাহি e༦ཊ | ம்_ _ ভৈরব-তাড়িতে তালা । ধরিল হরের বেশ তোমার শ্ৰীমতী | Mেওসাক –তেও র ি ভম্ম করিবারে পুন, ওহে গুম হে, ওলো নিত্য সখি, বল দেখি, বিপু’রতিপতি। | নারী-বধের ভাগী কে হইবে। রাগ-ভাগ নগ তায়, অলঙ্কারময় গায়, একেবারে সপ্তরথী করিছে প্রহার, আলু-খণ্ড বদনেতে নগন যুবতী। একাকিনী রাধে কেমনে ৰচিবে ॥ বেণী-জটাজুট মত, প্রাণ-বিষ কণ্ঠীগত, দুরাচার অহঙ্কার নিদয় হইয়া, বিষাদ বিভূতি মুখে,—মাখিয়াছে সতী ॥ পাধিয়াছে শ্ৰীমতীকে কোপ-লত দিয়া, _ற কাম হানে ফুল-বাণ, শশি-কর শেল, রামকী –আড়াত্তেতালা। আমার এ তনু—যন্ত্র। লে বোল বলিয়া বাজাইয়াছ, শ্রম, পিক-স্বর শর বিসে নিবারিবে ॥ ঋতুনাথ করে কাল-করবাল-পাত, সমীরণ করিতেছে গতি বজ্ৰাঘাত, হলো তাই মন্ত্র। f. কুহুম পৌরভ শুল করিছে ক্ষেপণ, মুখ দুঃখ খেদাহলাদ, মা লন্ত মোহ বিষাদ, এরূপে অবলা নিতান্ত মরিবে ॥ এই সাত মুরে তিন গ্রাম, তিন নাড়া তন্ত্র ॥ பிம்க তুমি বল যাই যাই, মোর প্রাণ বলে তাই, ধট—ত্রিয়ট । কি রাগে বিরাগ হে করিলে, এ কেমন তন্ত্ৰ ॥ মম ঈদয়-কমল মাথ, দেখ বিকসিত ৷ মানস-গগন-দেশে, তব রূপ অরুণ-বেশে چیچچa= جمعیتی === রামকলী—একতাল।। হয়েছে উদিত ॥ গুমের গুণ সই, কেন কর গান। দুঃখ-নিশি পোহাইল, মুখ দিব প্রকাশিল, মিশায়ে প্রেম-রাগে, বিচ্ছেদীয়-তান ॥ জাগিল জীবন। বিহারীয় ক্রিয়া-কাল, বিস্মর বিলাস-তাল, তোমার গুণ-ভ্রমর, মরমে করিয়া ভর, ধারে বারে দিওনা এ, ‘হায়-হায়’,-মান ॥ " গুঞ্জরে ললিত ॥