পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৪১২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


\D2 o প্রেম-রূপ দিনকরে, বিচ্ছেদ-কলঙ্ক ধরে, লজে হৃদি কমলের মলিন বদন । ভানু হলে কলঙ্কিত, দিনে কমল মুদিত, দুঃখ-কুমুদনী হাসে এই দে কারণ। கம்கடி সম্পত্তি--আড়াতেতাল।। চঞ্চল হইল আচঞ্চল, তোমারে হেরিয়া । চঞ্চলতারে রাখিল ও-রূপে ঘেরিয়া | দেখ এ চঞ্চল আঁখি, রহিল নিমেক রাখি, পলক-বিচ্ছেদ সনে বিচ্ছেদ করিয়া। ত্যজিয়া বিচিত্র গতি, তোমাতে রহিল মতি, দেখাইতে পারি ভুব্ধ-মঙ্গে বদরিয়া । সামন্ত—আড়াতে তালা । কারে বল রজনী, সজনি লো, ও যে কাল-ফণি । বিরহিণী গ্রাসিতে আদিতেছে, গ্রাসি দিনমণি ॥ হেরি অতি দীপ্তিমান, করিছ যা শশিঙ্গান, তা জানিও নিউন্তি গগনেতে, রাখিয়াছে মণি ॥ ছায়।--রাপক | পিরীতে এই করিলে, বাধিত এ দুঃখ-ঋণে । কত নয়নের নীরে শুাম, শোধ দিব কত দিনে। দুঃখিনীরে দুঃখ-ধার, দিয়া কে পেয়েছে আর, কি আশ্বাসে এ বিশ্বাস, হুইল মুখ-বিহীনে। छझछझलैौ-खिम्नप्ने । হে বিরহানল, আমার আঁখিরে রাখিও, ख्यांद्र नकलेि लश्Gि । হিংমাংশু-বদন তার, নয়নেরে একবার, দেখিবারে দিও। নাসিক, রসন, আর হৃদয়, শ্রবণ, একেবারে সবাকারে করিও দাহন, শ্বামের নিচ্ছেদ-ধ'গে, মন-জীবনেরে আগে, আহুতি লইও । সিন্ধুরা—আড়াতেতাল । কমল কোমল অতি, কেমনে বলিলে। সম্ভব হইত যদি, থাকিতে সলিলে। বাঙ্গালীর গান । কমল নয়ন তব, কটাক্ষ-বাণ উদ্ভব, সেই শরে আঁখি ভেদি, মনেরে দলিলে । কুচ কমল-আকুতি, কিন্তু কঠোর প্রকৃতি, গুণ-গ্রাহকেরে কেন এ রূপে ছলিলে ॥ বড়হংস—একতালা । ইন্দাবরে প্রভাকরে হলো এক অঙ্গ । আধই নীলবরণ আধই সুরঙ্গ ॥ তব আঁখি-ইন্দাবর, তাহে রঙ্গিমা ভাস্কর, মিলনে বাড়িল রাধে, রাগের তরঙ্গ ॥ যে করিল এ ঘটনা, তার পূরিল কামনা, লজে শোকে অচেতন, মম মনোভূঙ্গ । ம்ேகமாடி পরজ-আড়াত্তেতাল। হাসিতে হাসিতে কেন করিছ রোদন, ওহে শুম হে! সরস বিরস, একত্রে 'রস, কিসে হইল মিলন ॥ যদি বল রমনাথ, পুলক-অশ্ৰুপাত, এতো নহে বিচ্ছেদের পরেতে সাক্ষাং, তা হলে কখন, হয় না এমন, মুদিত দুই নয়ন ॥ পরজ-আড়াতেতালা। মম নয়ন নীরদ করে বরিষণ, ও বিনোদিনি ! মুকুরে বদন, করিছ লোকন, তাহা করিতে মনন। রাধে, তব মুখচন্দ্র-মণ্ডল-দপণে, এইরূপ দেখিলাম মানস-গগনে, চত্রের মণ্ডল, হইলে নিশ্চল, বারি বরিষয়ে ঘন ॥ নয়নে সদয়৷ তুমি হলে এক বেশে, ভাব প্রকাশ করিলে মানসের দেশে, এই সে কারণে, আনন্দে নয়নে, প্রেমধারী বহে আন ॥ умирард др.