পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৪১৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৩২৪ স্বভাবের হয়েছে অভাব, ভাবিতেছি ভাব দেখে, যেন শিবের মত এলে আজ কুচনীপাড় থেকে ॥ কলেংড়া—আড়খেমটা । যাও হে যথা আছে প্রয়োজন, হেথা নাই প্রয়োজন। যে জন তোমার প্রিয়জন, হওগে গিয়ে তার প্রিয়জন ॥ বাঙ্গালীর গান । ওগো এমন দেখি না আর, কে মোর সৃষীকেণ রেখেছে শিরোপরে ॥ ঝিঝিট—তেওট । ওগো বিশাখা গো রধার প্রাণসখা সখ রে কঁাদ লে কে । গলিত অম্বর, নাইকো সম্বর, কঁদে পীতাম্বর, পীতাম্বর দিয়ে চোখে । যখন হে ছিলাম প্রিয়জন, তখন ছিল প্রয়োজন, ওগো কে কল্পে এমন, দক্ষালয়ে শিব যেমন, পুরাতনে নাই প্রয়োজন, নতনে নতন প্রয়োজন, পাতালে পাঠালে বলী,তুমি হে সেঞ্জন প্রিয়জন। শুন বঁধু বলি বলি, তোমার স্বভাব বলি, ஒறமை_ச் ভৈরবী—একতালা । সখী কে তারে বলে গে| কাল । ও যার রূপ মনোহর, হেরি দিগম্বর, শ্মশানবাসী হয়ে আছেন চিরকাল ॥ কালারই কামনা করি চিরকাল, জন্মে জন্মে ধেন পাই সেই কাল, কলারই ভজনে নাহি কালাকাল, ভজিলে সে কাল তরি পরকাল ॥ তাহারি চরণ করিলে স্মরণ, জীবনে মরণ হয় নিবারণ, তার যে চরণ হয় কি বিবরণ, করিলে স্মরণ ভয়ে পলায় কাল ;– তিনি কখন সাকার, কখন নিরাকার, কখন যে আকার হয় সে বাকার, কালরূপে কাল নাশে অন্ধকার, : (রূপ) কোটি চন্দ্র জিনে নাম মাত্র কাল ॥ ঝিঝিট—ত্তেওট । কমলিনী গে| তোমার কৃষ্ণ প্রেমমাখা অন্তর বাহিরে ॥ কি জলে স্থলে, এই গগনমণ্ডলে, তোমার কৃষ্ণময় কৃষ্ণ জগৎ সংসারে ॥ তোমার বসনে কৃষ্ণরূপ, ভূষণে কৃষ্ণরূপ, কৃষ্ণময় কণ্ঠে কণ্ঠহার!— করে মণিহার কর এ বিহার, ধন্ত ধষ্ঠ প্রেমতোমার, I | | f | অরণ্যেতে রাম যেমন সীতা হারায়ে কেঁদে ছিল স্ত্রীর শোকে ॥ শ্রামের মুখে নাই সে হান্ত, ঔদাস্ত দান্ত ভাব উদয়, হেরে শ্যাম-উদয়, আকুলচন্দয়, খেদে যায় কালীদয়, রাধার সদয়, রাধার হৃদয় ধন সৃদয় ছাড়া কল্পে কে ॥ ي معسكخبكتيستطصصيخصتفعضخي ললিত—ঝাপত্তাল । ওগো রাকি সম্প্রতি একবার খাম প্রতি সংর সম্বর রূপিণী সংগ্রা, | | শ্ৰীধর শ্ৰীপদাম্বুজে । যার জন্তে এ অরণ্যে, হে শরণ্যে কুলকণ্ঠা হয়ে ত্যজিয়ে কুল ভয়,—রাধা সে কালা চরণ তলে, লুটত মহীমণ্ডলে, কুণ্ডলে মকর কুণ্ডলে ধর। করমুজে ৷ একবার দূর কর চিন্ত দুরবৃত্ত সমান, তোমার অনিত্য মান হেরিয়ে মৃত্যু সমান, হও কান্ত প্রতি শাস্তমতিভ্রান্ত হইয়া ভ্রান্ত মতি, সম্মতি হে শ্ৰীমতী সম্মতি হও হৃদাম্বুজে। π-mυαΐα ধীশ্বাজ—আড়াখেমটা । ওগে কমলিনী, চেয়ে দেখ ধনি, পদে চিন্তামণি গড়াগড়ি যায়। মজলি কি ছার মানে, চইলি না শুম পানে, পানে পানে গুমের চুড়া ঠেকৃবে পায়। ধনী সুরধুনী উদ্ভব যার পায়, সে পড়ে চরণে তুচ্ছ মানের দায়। র্যাহার কুপায়, জীবে মোক্ষ পায়, সে নিরুপায়, করগো উপায় ॥