পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৪১৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গোবিন্দ অধিকারী। বিভাগ-একতালা । সুরধুনী যার পায়, সে রাই ধনীর পায়, নিরুপার হেরিয়ে চক্ষে, রক্ষ রক্ষ নিরূপায়। বলবো কি মা কান্না পায়, এমন কান্না কার না পায়, ধ্বজ বজ্রাঙ্কুশ যার পায়, তার মাথায় কি পা শোভা পায় । • কমল সেবিত যে পায়, বিমলাপূজিত সে পায়,প্যারী আর ঠেলন দুপায়, কুষ্ণ ধন কি যে পায় সে পায় | ললিত—তিওট । চুড়া ধিকৃরে ধিকৃ, চড ধিকৃরে তোরে । ছি ছি, নারীর চরণ তোমার উপরে। তুমি গোকুলের কালার্চদ, কপালের তিলকচাদ, কর্ণের কুণ্ডলচাদ রাধার নয়নচদ, হেরি সে চাদ তোমার উপরে। বড়র বড় গুণ কপালে আগুণ, তোমার এই কি গুণ, নারীর মান বাড়াও দ্বিগুণ, চড়া কোন গুণে তুমি শ্ৰীকৃষ্ণের শিরে ॥ ললিত –তিওট । বৃন্দে যাই গো যাই, আজি শ্রীরাধার পদারবিন্দে হই বিদায় ॥ ওগো বৃন্দে যাইগে যাই, একবার একবার ফিরে চাই, (আর) আসতে পাই না পাই, জন্মের মত দেখে যাই ॥ আমি ন জানি অপরাধ, আমায় দিলেন রাই পরিবাদ, তোরাও তো কিন্তু ভাবলি নাই। রাধাকুণ্ডের তীরে যাব, রাই বলে প্রাণ ত্যজিব, যেন মলে ঐ শ্রীরাধিকার চরণ পাই ॥ টোরি ভৈরবী—একতাল । আই আই ছিছি তার মনে মন, করে কি প্রাণ হারাবি কালিয়ে। চোরের উপর মান করি, ভূমেতে ভোজন হেরি, \ుa(t আহা অহা লাজে মরি গিয়েছে বহিয়ে, বিপং বুঝতে পার, আপনি বুঝিতে নর, তোমার জ্ঞান গিয়েছে, নন্দের গোধন চরাইতে । উতলার কৰ্ম্ম নয়, স্থিরপাণি পাথর সয়, নিজ কী স্ব সাধে লোকে দুখ না ভাবিয়ে,— আমার বচন ধর, চুড়া চিরঞ্জাবী কর; তুমিত হবোধ বট, গুম, সে যে অবোধ মেয়ে। t_க ললিত বিভাস --তিওট । রাই একি মানদণ্ড, নিজ দাসের প্রাণদণ্ড । কেন কেম,—কর রাই লঘু পাপে গুরুদণ্ড । এ দও কি দগু,—ওহে যেমন শমন দণ্ড । দণ্ডীর দণ্ডে বাড়ে দণ্ড খেদে ইচ্ছা হয়, দণ্ডী হয়ে ধরি দণ্ড ॥ যে দিন ত্যজিব দণ্ডধর, আমি ভজিব দণ্ডধর, হরো দণ্ডধর ; সেইদিন জনবি রাই বিচ্ছেদ, দণ্ডের কি দণ্ড ॥ ४७भ्रुवौ-प्रशामjन । দেগো বৃন্দে আমারে যোগী সাজায়ে। সৰ্ব্বত্যাগী হব আমি শ্রীরাধার মানের দায়ে ॥ এই লওগো গুঞ্জা হার, কুঞ্জে না রহিব আর, কাশীবাসই অঙ্গীকার, কাজ কি বাণী বাজায়ে। এই লও গে পীতাম্বর, পরায়ে দেও বাবাম্বর, ভজিব ভব দিগম্বর, মানদণ্ডে দণ্ডী হয়ে। তাজে বাজুবন্ধ বালা, ঘুচাইব সকল জাল, লহ বনমালা দেহ অস্থিমালা পরায়ে ॥ দেশে না রাখিব দ্বেন, ত্যজিব নগরালী বেশ, ধরিয়ে চাচর কেশ, দেও জটা বিমায়ে। ভালবাস ভালবাসি, ভালবাসে ব্ৰজবাসী, এই লও গে। চূড়ানাশী, দেও যমুনায় ভাসায়ে ॥ অৰ্দ্ধচন্দ্র দাও আনি, শিরে ধরী সুরধুনী, চন্দন ঘুচায়ে ধান, দেও বিভূতি মাখায়ে। আর কিছু নাহি অপিক্ষে, মননে করিয়ে শিক্ষে, রাই মান করিব ভিক্ষে, শিঙ্গে ডম্বুর রাজয়ে ॥ க_)