পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৪২৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


- oog বাঙ্গালীর গান । বিভাস—কাওয়ালী । সতত হয় দেহ দাহ, দেখে এলেম তব রাধারে, হরি যমুনার ধারে। ক্ষণে ক্ষণে হয় মোহ, সে দাহ নিৰ্ব্বাহ প্যারী চন্দ্রীধরে, কোন সখী ধরে, দেহে দেহে মিলন করি। জীবন রবে বলে জীবন দিচ্চে ধারে ॥ হুতাসে পিপাস ত্রাসে সদা তনু জ্বলে, হস্ত দিয়ে কেহ দেখে প্রাণাধারে, করে জল জল, বলে দে জলভাসে নয় জলে। তাহে হয় না জ্ঞান প্রাণ আছে আধারে। সতত হয় মনঃপড়ে,নয়ন ঝরে মনে পড়ে, তব প্রেমধার এতই কি রাই ধারে, ! চিকিৎসা জানে সে পীড়ার, বধিলে তাহারে বিচ্ছেদ-আসি ধারে ॥ | মনঃপীড়া আছে যার। কেহ লেখে তব নাম শ্ৰীমতীর কায়, কোন বৈদ্য না পায় বুদ্ধি, তুলসীমঞ্জরী আর গঙ্গামৃত্তিকায়, প্রেমন্ত্রর অবস্থা, নাইকো শাস্ত্রে পঞ্চবটী করে যমুনাপুলিনে, নারে বুঝিতে কি দিবে ব্যবস্থা ; রেখেছে প্যারীকে তার মধ্যস্থানে, আছে তন্ত্রমন্ত্র গণ পড়া, সকলি ও তন্ত্র ছাড়া, কেহ তব নাম বলিছে শ্রবণে, স্বদন কয় আছে জলপড়া,দিলে ব্যাধি যালে দূরে। যমুনা প্রবলা গোপীর নয়ন ধারে। অন্তর্জল কেবল রাধার আছে বাকী, ! * ET অন্তর্জল এতক্ষণ তাহা আছে কি। हैंझू-भ१jभन-¢क । রাধা যদি মরে ওহে রাধানাথ, প্রাণ দিওনা, ও আশ} ভাল না, কে আর বলিবে তোমায় রাধানাথ ; কাঙ্গালের প্রাণে সাজে না । মনে ভাবি তাই শ্ৰীদ্বারকানাথ, এক প্রাণ দেও যারে তারে, রাধানাথ হ’লে বাচাতে রাধারে ॥ দেখিতেছি পরস্পরে, "Πή Φπημη..." এমন প্রণের আশা কে করে । দেখনা চেয়ে পায় মরি হয়, যে তোমারি প্রাণ দিলে তখনি তার প্রাণ নিলে, প্যারী ভোর রাঙ্গা পায়, কেউ নিলেত মুখে থাকে না। চরণকমলে নীলকমল আহামরি কি শোভা পায়। শান্ত দান্ত সখ্য আর বাৎসল্য মধুর রস হরি, ধ্বজবজ্বাক্ষুশ র্যার পায়, জানি তোমার পঞ্চরসে যে রসে যে রসে হরি, র্তার শিরে কি পা শোভা পায়, . বলি তোমার একি লীলে, প্যার আর ঠেলিস্নে পায়, | বলি তোমার প্রাণ কিনিলে । কৃষ্ণধন কি যে পায় সে পায়। | তবে কেন পাতালে নিলে, স্বদন বলে ও রাঙ্গ পায়বলি পাতালে পদ পায়, অদিতি কগুপ ত্যজিলে, আর শুনেছি ও রাঙ্গাপায়, জাহ্নবী জাম পায় ॥ তাইতে তারা প্রাণ ত্যজিলে மயம்_. এই কি তব লীলার মন্ত্রণা। পিন্ধু—কাওয়ালী। ত্রেতাযুগে করে লীলে, পিতার প্রাণ নিলে, কার হয়েছে জ্বর এ ব্ৰজপুরে। জানকী আনিলে, পুন জানকী ত্যজিলে ; বার হইয়াছে বিচ্ছেদ-ব্যাধি, তার পরে দ্বাপরে ললে, কারাগারে জন্ম নিলে, অন্তে তাকি জানে বিধি, দিয়ে তার ঔসধ আদি, বদিশালে তারে রাখিলে,জানিলে শুনিলে লীলে, দেই সেই বিচ্ছেদ বিচ্ছেদ করে। কেউ লবে না প্রাণ যাচিলে, প্রেম হয়ে একই হ’লে দেহের অন্তর, । স্বদন কয় সকলি বঞ্চন ॥ প্ৰেম-জ্বর হয়ে পুনঃ হলে স্বতন্তর । ====