পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৪৩১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


মধুকান। VᏬ ᏬᎼ কমলিনীর চরণে তৃণটী ফুটে, তোমার নাইকে বলাবলি, কৃষ্ণ উন্থ উহু করে উঠে। আমরা কেবল ভুলায় ভুলি, αε- -- স্বদন কয় কি ভুলায় ভুলি, খাম্বাজ–ঠ রি। আর ভুলিব না এবার বঁচি যদি ॥ ধীরে ধীরে চলিল রাই হংসগতি । কিবা চরণ দুখানি অগতির গতি ॥ রাশি রাশি শণী,পদনখে বসি, পরজ-মধ্যমান । অধোমুখে থাকে রজ লাগে যদি । ও মন রথ রাখ রথ রাখ থাক, যত গুল্ম লতা, হেঁট করি মাথ, বারেক ফিরিয়ে দেখ । বলে দিন পাই রজ লাগে যদি ॥ আর হবে না দেখাদেখি, দেখি দেখি দেখ দেখ ॥ கம்பக ত্যাজ্য করে মনোরথ আরোহিলে মুনিরর্থ ঝিপিট—মধ্যমান । আমরা কেবল অবিরত কঁাদৃতে বত চেয়ে দেখ ॥ রথ রাধ অমনি ও মুনি, হেরি গুণমণি একবার মনে করেছিলাম হয় গিয়ে হয় ধরি, বি নিলে নীলকান্তমণি ঐ এলে ॥ হেরিয়ে তুরঙ্গরঙ্গ আতঙ্কেতে মরি, সেই চাদবদনী, রমণীর শিরোমণি, একবার ভাবি ধরি চক্র, ঘুচাই অক্রুর চক্র, ধরে ধ্যানে না পায় মুনি, এখন দেখি চক্রীর চক্ৰ তুমি এত চক্র রাখ ; ঐ এলো সেই চন্দ্ৰাননী, যেন মণিহারা ফণী আবার ভাবি মরি গিয়ে মিছে কেন ভাবি, , কি মোহিনী বলে নিলে, মনোমোহিনীর পরে ভাবি সে ভবেন আমরা কেন ভাবি— মদনমোহন, মন চোরকে করেছ কি করি বুঝে না যে মন, চুরি, সাধু হয়ে কি অকারণ, মন তোমার পাষাণ কেমন, সুদন কয় কথা গায় হরি নামাঙ্কিত, দেখতে যেন সাধুর মত, কেমন, বলেছিলেন যাব নাক । ন বলে যে চোর এত, কে বলে ইহারে মুনি। து_ந்ந்கர் கம்ாற்கடி . পরজ-—মধামণি | জয়জয়ন্তী—টিমেতেতাল।। এই কি তব দয়া দয়াময়, কও আমায়ু । রথ রাখ সারথি দেখাও রথী, এ দম্ব দেখে দয়া হয়, তব অনুগত যে হয়। তার কি দশ এমনি হয়। দয়া নাহিক এক রতি । যার পদ ধরেছ শিরে, ত্যজিলে সেই প্রেয়সীরে, যুগল করে করিব এই আরতি ॥ কালসোণ ৰ্কাচাসোণ, যুগল মন্ত্রে উপাসনা, সে করাঘাত করে শিরে, হরে নিলে কালসোণ, ফিরে একবার দেখ না তায় । হেরিব না আর এ যুগল।কৃতি | যে রাধার কারণে বাধা বহিতে মাথাতে, হরিত চলেছ পথে এ পথের পথ, ধেনু সনে গোচারণে ভ্ৰমিতে বনেতে, দাড়াও হে পথের পরিচয় করি শ্ৰীপতি, তোমায়ু যোগে পান না যোগী, জানা ছিল রবে নিশ্চয়, যার লাগি সেজেছ যোগী, এখন পেলেম খুব পরিচয়, এখন তার করেছ বা কি, পেলেম হে পথের পরিচয়, যজ্ঞেশ্বর যাও হে কোথায় ॥ কেহ করে নয়, জানিলাম হে সম্প্রতি ॥ রসময়, কে তোমায়ু বলে ওহে বিশ্বময়, যদ্যপি এক দিনের তরে কোথায় থাকৃতে হয়, দেখিলাম আমি অসময়ে বেল বিষময়, প্রত্যুষেতে যাবার বেলা বলেও যেতে হয়, দেখলাম তোমার যত মায়া,