পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৪৭৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


وق صواO\ কন্ত কর হে সম্প্রদান, ইথে তোমার বাড়িবে মান, দেখাব নানা তীর্থ-স্থান, পরাব বাঘছাল ॥ আগন্ধা । হায়, কেন না বুঝিয়ে পড়ানু তোরে। বিপাক ঘটিল দেখি আজি মোরে ॥ একটা সন্ন্যাসী, দারুণ তেজী, নিত্য বলে আসি, আন বিদ্যারে। পরণে বাঘছাল, গলাতে হাড়মাল, বম-বম বজায় গাল, জটা শিরে ॥ আড়খেম্টা। শুন শুন ও গুণমণি, আচম্বিতে কি শুনি ॥ এসেছে এক পরম যোগী জিনিবেন তিনি ॥ এসেছে সে রাজসভাতে, বিচার হবে কালপ্রভাতে, বজায় এখন রয় হে যাতে, বল হে শুনি ॥ আড়খেম্টা। প্রেরসি, তোমার নূতন কপালে । তোমার নূতন নূতন সদাই মিলে ॥ প্রেমরসেতে তুমি নুতন, এসেছে সন্ন্যাসী নতন, নূতন ফুলের আদর নূতন, (ওলো) নূতন মাল পরবি গলে— ( ওলো) নতন মাল পরবি গলে । আড়ধেমূটা। আগে না জেনে শুনে মজে, ছার প্রেমে দায় ঘটিল। প্রতিজ্ঞাতে তোর, সোণার ধোবন, সন্ন্যাসীরে দিতে হল। শৃগালের বাস সিংহসনে, মুক্ত পড়ে উলুবনে, গুবরে এসে মধুপানে, তেমনি তোমার বোণী হল ॥ स्त्रीप्तां भूषॆ 1 ।। আর শুনেছ গুণধর। এসেছে এক ব্রহ্মচারী বাঞ্ছা তারি হতে বর ॥ | বাঙ্গালীর গান নিত্য এসে যায় মহারাজের পাশে, বিচারে জিনিবে এই অভিলাষে, এই বটল শেষে ;— রব না এ দেশে, প্রাণ বাচে কিসে উপায় কর । আড়ঙ্গেমৃট। ৷ ধনি, তার কি আর ভাবনা। ঘুচে গেল এখন এ যন্ত্রণা। হবে নবীন সন্ন্যাসিনী, চাদবদনি, ওলে চাদবদনি, চাঁদের কোণা | জলেতে জল বধে ধনি, তোমার তেমনি দুধে চিনি, আমার ভাগ্যে শাকে বালি হয় ধেমনি,— ওলে, জাত হারলাম পেট ভরলো না ৷ আড়খেমট1। মিছে ভাব অনিত্য নিয়ত সে ভাবনা। ভেব না, সন্ধ কর না, যা হয় না, হবে না | যে করেছে পণ ভঙ্গ, বাড়াইয়ে মান-তরঙ্গ, তারি সঙ্গে রঙ্গরসে করবে। কাল যাপনা। লোকে করে কণিকাণি, বিদ্যা হবে সন্ন্যাসিনী, যখন কুপ করবেন কালী, কালের মুখ হবে কালী —শত্র চক্ষে পড়বে বালি,— আমি মনে ভাল জানি, সন্ন্যাসিনী হব না ॥ আড়খেম্টা। বলি ধর ধনি, রাজনন্দিনি সন্ন্যাসিনী বেশ। মহেশের মহিষী হলি এলিয়ে চাচর কেশ ॥ ও চুলেতে গ্ৰেদা কাট, হুদয়ে কাচলি আঁট, পরবি লো তুই হোমের ফেঁট, দেখবি দেশ বিদেশ । একতাল । সখা, কেন কর মিছে চিস্তে । অনিত্য চিন্তে, কর স্বচিত্তে, একান্ত চিস্তে গুণমণি, কর চিন্তামণির চরণচিত্তে ॥ গরুড়ের ধন, কাকে কি কখন, লইতে পারে সে প্রাণ-অস্তে ।