পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৪৮১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গোপাল উড়ে । পুরুষ নির্লজ্জ আতি, সরমে মরে যুবতী, পতি বিনে সতীর গতি, নাহিক সংসারে। পুরুষ পরশমণি, রমণীর শিরোমণি, সকল গুণের গুণমণি, সবে সমাদরে। ங்க (?g| | নারীনাশক বিশ্বাসঘাতক পুরুষ কুটিলপ্রাণ। দয়হীন পুরুষের দেহ পাষণে নিৰ্ম্মাণ ॥ প্রথম মিলনকালে, ভুলায় কত কথা বলে, জলেতে না ফলে, ফুরায়,—স্বকাৰ্য্য হলে,— নারীর ধন সৰ্ব্বস্ব হরে কলে কৌশলে ;– শেষে দোষী করে, পলায় ফেলে, তুলে কলঙ্কের নিশান৷ তেমন হলে নারীর প্রাণ, রাখত না পুরুষের ধ্যান, গর্ভবতী সীতায় রাম দিলেন বনবাস,— দময়ন্তীর দুঃখের কথা নলেতে প্রকাশ ;– মহ-রাস ইচ্ছা করি, পথশ্রান্তে কাতর প্যারী, এসে স্কন্ধে করি বলে, হরি হলেন অন্তৰ্দ্ধান ॥ কাওয়ালী । আহা মরি, প্রেম-দায় হলে একি দায়। ভালবাসি বলে রে প্রাণ মজলে আমায় ॥ মনে করি হব সুখী, রমণীর মন-চাতকী, তাহে বজ্রাঘাত দেখি, বিধাতা ঘটায় ॥ μ@gmωmbωmunωπ: আড়খেম্ট । বিধুমুখি, উপায় কি করি তা বলনা। তব অদর্শনে প্রাণ বঁাচে ন-রাচে না। পরম পণ্ডিত সেই গোসাঞি, তব মুখে শুনে তাই, না জানি কি ঘটায় পাছে, আমার গতি নাই— চোরের ধর্ম বাটপড়ে নিলে, দেশে মুখ দেখাই কি বলে,— মুখের গ্রাস কেড়ে নিলে, আপৃসেসে প্রাণ বঁচে ন৷ | \9b*。 কাওয়ালী । বল প্রিয়ে, কার মন রাখিবে কখনৃ। এক রমণী তুমি সখা তোমার দুই জন। আমার মন রাধিতে গেলে তার মন ভারি,— কেমনে উভয়ের মন রাখিবে সুন্দরি ;– বল দেখি বিধুমুখি, তার উপায় ভেবেছে কি, ভূটানায় পড়ে রে প্রাণ, হবে না প্রেম-উপার্জন। কাওয়ালী । বসে প্রিয়ে, আসি রে এখন, প্রাণধন। অধীন আশ্রিত জনে রেখে লো স্মরণ ॥ অস্তগত নিশাপতি, স্বস্থানে করিব গতি, মুখে সন্ন্যাসী-সংহতি, কর আলাপন ॥ 〔冲西11 আজ আসি রূপসি, আমি আসবে সময় পেলে। হ'ল যখন মনের কথা, প্রাঙ্গ, তাও কি ভোলে ॥ দিয়েছ যে ভার, পরোয় কি লো তার, নারকেলের ভিতরে যেন জলের সঞ্চার,– পঞ্চাশ ব্যঞ্জনোপরে দুধের উপর চিনি দিলে । কাওয়ালী । আমার মন ফিরে দাও মনে মনে দেশে চলে যাই। ভাঙ্গলো পিরীতে বাসা আশায় পড়লো ছাই॥ প্রবণে অপ্রয়েছন, নবীনে কর যতন, তুমি যেমন নবীনে, তেমনি নবীন সন্ন্যাসী;— ভসবে মুখ-সাগরে মুখে থাকৃবে রূপসি — বুঝলেম তোমার দেতোর হাসি, আর হেসে কাজ নাই ॥ আড়ধেমূট। নাতনি, কিন্তু গুজব উঠেছে। বিয়ের ফুল ফুটেছে। আজগুবী এক যোগী নাকি, আচকা রাজসভায় এসেছে | পূজা করে গঙ্গাধরে, আচ্ছা বর পেলি তার বরে, সিদ্ধি ঘুটবি কোমল করে, ভাল কপাল তোর ফিরেছে ।