পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৪৮৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গোপাল উড়ে। ØÁ ® আড়াঠেকা । প্রিয়ে, প্রাণ বুঝি যায়। | কি দোষ দেখিয় দোষী করলে আমায়। ! তোমা ছাড়া কভু নই, স্বরপে প্রাণ তেরে কই, তোর জন্যে কত সই, জনাব কাছায়। তাড় । কেন বেদুন প্রাণ প্রিয়ে হান বাক্য-বাণ আর । তোম। বিনে জানি যদি শপথ করি তোমার ॥ কিবা শয়নে স্বপনে, আশনে উপবেশনে, তব রূপ জাগে মনে, তাই বুঝি তার প্রতিকার। । ভেবে দেখ মনে মনে, যাব যদি অন্য স্থানে, অপার নদী তবে কেন, পার হতে দিব সাতার ॥ | 3 || 1 | অভিমান ত্যজ ও বিনেদিনি । অস্তাচলে গেল শশী প্রতাত হ’ল যামিনী ॥ সারানিশি করি মান, বসনে ঢাকি বয়ান, নিরসনে বসে আছ আদরিণী প্রাণ,— কৃপা দুষ্টে এ অধীনে চাও ওলো প্রাণ,— চেয়ে দেখ বিধুমুখি উদয় হলো দিনমণি। । তব ক্রোধানল লয়ে, চন্দ এল স্থৰ্য্য হয়ে, । সেই তাপে মম তনু হতেছে দান,— শীতল কর করে প্রেম-বারিবরিষণ,— যেমন জলধরের জল আশা চাতক দিবা যামিনী ৷ আড়খেমটা । # আমি কি মন রাখতে পারি, প্রাণ তোমার মৃনের মত । ভয়ে ভয়ে কথা কহ খেয়ে থাত মত | তুমি বড় মানুষের মেয়ে,আমি বড় তোমায়ু লয়ে, অপর নদী সীতার দিয়ে, পার হতে উদ্যত ॥ । খেম্টা। মনের সাধে কুসুম-শ্য বাসর সাজাব। গেঁথে হার বকুল-মাল৷ তোমায় পরাব ॥ শিল্পকৰ্ম্ম এমূনি জানি, ভুলে যাবে ঠাকুরাণী । fক বাহার ফুল-গাথনি, চটক দেখাব ৷ பகாது আড়ধেমৃট । শুন শুন ওলে প্রাণ ধন। মনে ভাবি সৰ্ব্বক্ষণ ॥ কেমনে ভুলিব তোমার, থাকিতে জীবন। যে অবধি এ নয়ন, হেরেছে ঐ চন্দ্ৰবদন, হইলে পলক পতন, প্রলয় যেমন । পিরীতের এই নীত, মুখ দুঃখ সমুচিত, কেমনে রব জীবিত, হলে বিচ্ছেদ যখন। ৩াড়খেমটা । য| বলিলে ও গুণমণি। যখন হবে তখনি ॥ তরঙ্গ দেখিয়ে কেন ডুবাও তরণী ॥ রমণী মুখের তরী, পুরুষ তাহে কাণ্ডারী, জেনো হে তেমনি নারী, ডোবে আপনি । ঝড়ঞ্জল আর বৃষ্টি তুফান, কত হয় তার নাই পরিমাণ, ডাকিলে কোট’লে বাণ,প্রাণে টানাটানি ॥ -شس - আড়খেম্টা। বসে বসো ও প্রণেশ্বর। তবে করি শ্ৰীহরি। রহিল মোর মন প্রাণ, তব প্রহরী। যখন কিছু মন হবে, মনে প্রণে কথা কবে, কায় মাত্র ভিন্ন রবে, ওলো সুন্দরি ॥ (શમાં তোর সব উলুধ্বনি দে। আজি আমাদের ঠাকুরাণীর কপাল ফিরেছে। আয়ু গো আয় বড় দিদি, গায়ে কাদা মাখবি যদি, গদ মাগিতে যা লো খুদ, খোকা হয়েছে। কাওয়ালী। ও গো সখি হ'ল একি উদরে আমার । বুঝি হলো গুল্ম রোগ বসলে উঠা ভার ॥ ধরেছে বিষম রোগে, বাচাস যদি যোগে যাগে, নতুবা রোগের ভোগে, নচিনাকে আর ॥ সদা মুখে উঠে জল, ইচ্ছা হয় খেতে অঙ্গল শরীরে নাহিক বল, বল গে প্রতিকার। க