পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৪৯৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


| স্বৰ্গধামে মদাকিনী, কলকাতাতে মুরধুনী, রূপচাঁদ পক্ষী । ধন্ত ডাক্তার ওসগনেসিসকলকে করেছেন খুলী, ব্রিটন দেশী গুণরাশি, মুখে বলি হউন অমর। (রোগ শোক তাপ নাশি হউন সরল অন্তর) নন্দনকানন ইডে গার্ডেন সম নিছনি, ইন্দ্রের বাহন ঐরাবত, কলকাতাতে ফিটেন রথ, পরিজাতকে করে মাং গোলাব সেঁউতি নাগেশ্বর (ফুলের টবে ধাপে ধাপে শোভা পায় সিঁড়ির উপর) পরিষ্কার পথ নইকো, ময়ল সারি সারি, গ্যাসলাইট আল, চন্দ্র দেবের ষোল কলা হতে উজ্জ্বল,— শুক্ল পক্ষে উদেন শশী, | এর পক্ষপাত নাই কোন নিশি, কৃষ্ণ পক্ষ শুক্ল পক্ষ উভয় পক্ষ নয় অন্তর। । (ৰ্চদেত আর তাতে তুল্য কল্লে ইংরাজ কারিকর ) | করিয়ে বুদ্ধির কৌশল,পলত হতে আনলে জল, জলে শত সিংহের বল, লক্ষহাত প্রবল ; ধন্ত বৃটেন রাজধানী, প্রজার ঘরে বাহিরে সুরধুনী, অপঘাতে ম’লে প্রাণী ; তাহার ভূত-যোনির নাহিক ডর। (যাবে মনমুখে, স্বৰ্গলোকে, হইয়ে অমর নর ) আমরি কি পরিপাটী, বৃটেন রাণীর রাজবাটী, আকৃতিটী বাট পাঁচটী, ফলত একটা; পালেস অব গবর্ণমেণ্ট, শোভা জিনিয়ে বৈকণ্ঠ, গড়ের মাঠে মনুমেণ্ট,পেড়ের মন্দরের ফদর । ( আখাম্বা সাততাল। লম্বা, যেন জগদম্বার বাবার ঘর) ইষ্টম ভেসেল রেলওয়ে, এই সকলের তেজ হেরিয়ে, বেদ ব্ৰহ্মা ভোম হয়ে গেলেন চাপিয়ে ; অগ্নি জল আর পবনে, যায় এক মাসের পথ একটী দিনে, এক কোট মন দ্রব্য টানে, | | | | নাহি রাত্রি দিব অবসর } (রেলের বাণী, শুনে আসিবোটে যত নারী নয়) 8 e (t লেস্লী সাহেৰের বুদ্ধি নিজ, হাবড়ার স্বাটে ফাষ্ট্র ব্রীজ, শিল্পবিদ্যা জগং আরাধ্য, হায় কি আজব বীজ ; ত্রেতাতে ভেসেছে পাথর, ইনি লোহা ভাসান জলের উপর, মাঝে খুলিলে জাহাজ চলে,অৰ্দ্ধ ঘণ্টার ভিতর ॥ (রেল চলিবার হেতু, হুগলির সেতু, জুবিলি ব্রীজ নামান্তর ) আমহউস অতিথিশালাকত আছে যায় না বলা, রাবণের চিতার মত খোলা, জ্বলে দুবেলা ;– আহার প্রস্তুত পাকি কঁচি, যাহার যেরূপ হয় অভিরুচি, পিষ্টক পায়ুস মাংস লুচিভারতাশ্রম ধৰ্ম্মের ঘর। (ন্তাড়া নেড়ী, খালী বাড়ী কৰ্ত্তাভজা স্বতস্তর ) নিকাশ হচ্চে ময়লা জল, করেছে প্রস্তুত ড্রেনেজ কল, ধূলো থামে দিলে জল স্বতন্তু এক কল ; অগ্নিদেব হলে প্রবল, নির্মাণ করে দমকল, গোরাদের চেহারা দেখে, ভয়ে পলায় বৈশ্বানর, পাল্পে জল যোগাতে, সাধ্য মতে, সাধ্য কি যে পোড়ে ঘর ॥ । (মেসিনেতে দিলে দম, কোরে বাম বাম, তেজে বেরোয় ওয়াটর ) সকল প্রস্তুত কলিকাতাতে, এমন নাই এ ভু-ভারতে, এক লামাটিনের ফণ্ড হতে তরে জগতে, অনাথমন্দির ঔষধালয়,জেলে জেলে অন্নবিলায়, ঐ ফণ্ডের ধন, কারাগার হয় মোচন, ইন্সলভেণ্ট পায় নর। (অন্ধ খঞ্জে, টালিগঞ্জে, টিকিট পায় বংসর বৎসর ) সতীর কনিষ্ঠ অমূলী, কলিকাতাতে আছেন কালী মা, কালী কলিকাতাওয়ালা সৰ্ব্বমঙ্গলী ; শ্ৰামা মায়ের কি বৈভব, প্রত্যহ হয় উৎসব, ঈশানেতে কালভৈরব শ্ৰীপ্ৰভু নকুলেশ্বর ॥ (কালী ক্ষেত্রের মাহাত্ম্য দেবগণের অগোচর ) বারমাস নিশি দিব, হয়েছে অতিথি গেব,