পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৫০৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


8 » R. সিন্ধু —জলদ ভেতালা । জলে জলে প্রাণ জ্বলে, শীতল যমুণ৬.ল । হরিদাস, পীতবাস, অপ্রফJ্য কোথ, হলে ॥ অবলা সরলা বাল, বুধতে নর তব ছল, না জেনে ত্রিভঙ্গকাল, দুকুল রাখিলাম কুলে। ননীচোর তব গুণ, প্রকাশ এ ত্রিভুবন, গোপনে হরি বসন লুকালে কদম্ব-তলে । ক্ষমা কর হে কেশব, বিবসনা গোপী সব, যাবে কুলের গৌরব, লোকে জানিলে । নারী করি বিড়ম্ব•, ,কি মুখ হবে বলন, ঘরে পরেতে গঞ্জন, কেলে সোণ দিলে দিলে ॥ (ওহে ) বাসুদ-বরণ হুরি, গভীর যমুনাবারি, শীতে হরি পেঁপে মরি, রমণীকুলে। রঙ্গ তেজ সে ত্ৰিভঙ্গ, ক্রমে উঠিছে তরঙ্গ, ভয়েতে কল্পিত আদ, আতঙ্গ হ’লে আনিলে । ব্রজে হবে অপবাদ, জননা কি কালাচদ, বৃথা কেন সাধ বাদ গোপিকাকুলে । অপমানে প্রাণে মরি, আমরা নারী সইতে নারি, দেহ পরিহর হরি, ডুবে মরিব সলিলে। কহে দীন খগবর, তীরে গোপীক উত্তর, স্বর্যোরে প্রণত কর, দ্বি বাহু তুলে। জলকেলি সমাপন হেলে পাইবে বসন, হ’য়োমাকো উচাটন গোপিনীগণ সকলে ॥ حاگصيه ধাস্বtজ—একতাল।। সই, ঐ নীপমূলে। ত্রভঙ্গ ঠামে বামে হেলে, অধরে মুরলী, উচ্চ রব তুলি, শ্রীরাধে জয়রাধে, রাধে রuধ বলে । সপ্ত মুরে যোগ করি, তিন গ্রাম একুশ মূৰ্চ্চন অতি অনুপম, ছয় রাগে বেগে নব ঘন শ্রাম, রাগিণী সহিত লয়ে তালে তলে ॥ এ রবে কি রবে বরজিনী সবে, কেশবের জ্বালা কে সবে কেসবে, যায় ষাকৃ কুল শীল যাবে যাবে, হেরিণ মাধবে জল ছল ছলে ॥ কি ক্ষণে সে ধনে হেরেছি নয়নে, আর আঁখি সখি, ফিরাতে পারি নে, ছদি-মাকে শুাম পসিল গোপনে, অন্তর বাহির, বাঙ্গালীর গান । তিমির নাশিলে। করি অনুরাগ, দীন খগ কয়, কষ্ট-নষ্ট-কারী কৃষ্ণ দয়াময়। সৰ্ব্বত্রে তাহার আবির্ভাব হয়, ভূতলে কি জলে অনলে আনিলে ॥ মিশ্র সুরট—কাওয়ালী । সই, হের নব-জলধর-বরণে। কটি-তটে পীতাম্বর কিবা শোভাকর মনোহর মুরহর বংশীবদনে ॥ চরণ অরুণ কর, নখরেতে নিশাকর, মনোহর শেভাকর জানু করি-কর জিনে, চুড়া টেরা মনোহর, তাহে বেড়া গুঞ্জহার, পঙ্ক বিশ্ব ওষ্ঠাধর, সুধাক্ষর বচনে ॥ শ্রীনদের কুণ্ডার পুতনা নিধল কর, ননিচোর বৃন্দা বিপিনে, নট শঠ নাগর ব্ৰজবধু মনচোর স্মরশর নয়ন সন্ধানে । ভণে দীন খগবর, সযতনে ধ্যানে ধর, শ্যামল সুন্দর ধনে । স্বাবে যদি ভব পার, ভাব ভবকর্ণ-ধার, রে মূঢ় মন আমার, হৃদি-পদ্মাসনে ॥ দেশ-যৎ । হের হের নব জলধর-কায় । ( ঐ সই ) ধরাতে ধরেন রূপ, নয়নে কি ধরা যায়। (যুগল) জিনি রক্ত কোকনদ, শোভিত র্তার শ্ৰীপদ, পদোপরে দিয়ে পদ, দাড়ায়ে কদমতলায় । পাইলে যুগলপদ, ভবেরে ভারি গোপদ, তুচ্ছ হয় ব্রহ্মপদ, ও শ্ৰীপদ ধেব পায় ॥ রস্ত তরু উরু দুট, কেশরী জিনিয়ে কাট, পরিপাট পীতধটী, আঁটি সাটি বাধা তায় । কক্ষেতে পাচনী লাঠি, বক্ষে লেপা গোপীমাটি, ২েরিয়ে সে ভঙ্গি দিঠি, কোটচন্দ্র লাজে ধায় । দিনকর জিনি কর, নখরেতে নিশাকর, / কণ্ঠে লুণ্ঠে মণিহার, নাসা তিল ফুল প্রায়। পক্ক বিম্ব ওষ্ঠাধর, অধরে মুরলীধর, সপ্ত সুরে নিরস্তর, রাধা রাধ গুণ গায় ॥