পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৫২১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রসিকচন্দ্র রায় । শিখর-কদম্বে, তরাস-দায়িনী। | পীনোন্নত কিবা যুগ্ম পয়োধর, করিকর-গুরু উরু মনোহর, ! কটিতট কার-অরি-নিন্দকর, তাহে নরকর-কিঙ্কিণী, নরশিরো-মালে শোভে ভয়ঙ্কর, চিবুকে রুধির দর দর দর, গভীর হুঙ্কারে গর গর গর, থর থর থর কঁপায় মেদিনী। o অর্ককোটি তেজে যেন তেজঃপুঞ্জ, i ধক ধক জলে রক্তবর্ণ লঞ্জ, লক লক জিহ্বা এলাইত কঞ্জ,বুঝি শঙ্ক-মোহিনী, সিংহ নিনাদিনী বিবাদিনী কেরে, ধর ধর ধর ধর-এ বামারে, | রসিক বলে ধর, ধরিয়া সত্বর, কর এ হৃদয়-বাসিনী। আলেয়া—আড়াঠেকা । আয় গো ভুবনেশ্বরি জগং জননি । | সৃদিপদ্মে রেখে সাজাই, পাদপদ্ম দুখানি। এস গো মা মম বসে, হেমাঙ্গ সাজব বসে, যে কাল মন ভালবাসে, কৃত্তিবাসের মনোমোহিনী । হয়ে অবিরত রত, দিয়ে মম কত শত, সাজীব গো মা – (ভব ) ভাবিয়ে যে পায় না পায়, সে পদ বিনে পার না পায়ু, 8a。 ব্ৰহ্ম আদি হয় নিরুপায়, রসিকের কি উপায় শুনি ॥ Фшщрщшщндщк, সিন্ধু—একঙালা । তারা কোথা হই উঠে বস্তি। ছয় বেটাতে মিলে, মাতের ঘরে ফেলে, মায়-বোড়ে ঠেলে, দিয়েছে কিস্তি ॥ কুসঙ্গ কুরঙ্গ এই দুটা ঘোড়া, বল্পে পথ জোড়া, বল থাকতে হই খোড়া, ওমা তারিণি,— মিথ্যা প্রবঞ্চন নৌকা দুইখানা, করেছে যোজন, কি জবরদস্তি । পাপ-রেক্টায়ু মারা গেল পুণ্য-দাবা, আশা-চিন্তা-গজের রোকে বঁচে কেব,ওমা তরণি তাতে তুমি নও রাজি, হারি হ’ল এ বাজি দেখ মা তার আজি, রসিকের শাস্তি ॥ আলেয়া--স্তাওয়ালী। কাল হেরিব না আর নয়নে । কি কাল হলে কাল, জ্বলায় চিরকাল, কালরূপ ভেবে অঙ্গ হলো কাল, ত্যজিব কাল কেশে, কাম কি কালবেশে, দহে কাল ভূষণে ॥ ওলে কলামুখি কাল সখি শুন, কাল যেন কালভুজঙ্গের দংশন, হুতাশে মনে জ্বলে হুতাশন, আমার কথা শুন, হয়ে আদর্শন, যা লে কাল যেখানে ॥২৯ ঠাকুরদাস দত্ত। ആുജহাওড়া জেলার অন্তর্গত ব্যাটরাগ্রামে ১২০৮ সালে ঠাকুরদাসের জন্ম হয় । ইহার পিত্তার নাম—রাণ মোহন দত্ত। ঠাকুর দাস প্রথমে পিওrর মহিণ্ড ফোর্ট উইলিয়ামে এক কেরাণীগিরি কৰ্ম্মে নিযুক্ত হন। কিন্তু ৰাল্যকাল হইতেই সঙ্গীত-রচনায় ইহার বিশেষ অনুরাগ দৃষ্ট হয়। অনেক সখের ও পেশাদারী ধাত্রীদলের ইনি পালা রচনা করিয়া দিয়াছেন। শেৰে চাকুরী পরিভ্যাগ করিয়া ইনি এক পাঁচালীর দল করেন। অচিরে সেই দল বিশেষ যশস্বী হয়। ১২৮৩ সালের ২১ এ বৈশাখ ইনি দুই পুত্র ও এক কস্ত। ৰুধিয়া ইহ সংসার পরিত্যাগ করেন। W. בד