পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৫৫০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


8tw. গাড়া ভৈরবী—খয়রা। চল যাই কাজ নাই । (তারার তালুকে রে ) কখন আছি, কখন নাই, এ তালুকের মুখে ছাই ॥ পঞ্চজনার জামিন দিয়ে, এসেছ বয়নামা লয়ে, ভুলিলে বিষয় পেয়ে, শেষেতে পাবি সাজাই । ষড়রিপু জ্যেষ্ঠ যে, কানুনগুই হয়েছে, সে হস্তবুদে জব্দ করে, ফিরিতেছে রে সদাই ॥ । ক্ৰোধ হল পটয়ারি, লোভ মোহ মোহরী, খাজাঞ্জী হয়েছে মদ,— মাংসৰ্ঘ্য এই দুট ভাই ॥ যখন তোমার তসিল হবে, সাক্ষী সবে পলাইবে, । তখন কার দোহাই দিবে, আমার মা বিনে গতি নাই ॥ ভেবেছ রাখিবে বাকি, বাকি রেখে দিলে ফাকি, . রয়েছে ষসমাই সে ত নিলাম করে লবে রে, , নরচন্দ্র কথা লয়ে, পাপ মহলে ইস্তফা দিয়ে । দুজনে বিরলে গিয়ে, গুণময়ীর গুণ গাই ॥ সিন্ধু-ভৈরবী—আড়াঠে ক্ষণ । | নেং টা মেয়ের এত আদর, I জটে বেটা ত বাড়ালে । নহিলে কেন ডাকৃতে হবে, দিবা নিশি মা মা বলে ॥ শ্রীরাম জগতের গুরু, জ'টে বেট। তার গুরু, আপনি কেটা বুঝলেন কো, রইল শুমার চরণ তলে । বিষম পাগল জটে ব্যাট, শ্মশান ত তার মৌরস পাট, (আবার) বেটীর এমনি বুকের পাট, জটের বুকে পা-ট। দিলে ॥ গার-ভৈরবী—আড়ীঠেকা । ভাব রে শাস্তব বিদ্যা, গোপনে সরোজদলে ॥ হৃদে কালী বহিঃ শিব, বদনে শ্ৰীহরি বলে ॥ আদ্যা বিদ্য সিদ্ধাসনে, নেত্ৰ পত্র সচন্দনে, ভক্ত মুক্ত হয় দানে, ইহকালে পরকালে। 凈 తాu Fū .* or ا.' 驗 বাঙ্গালীর গান ! কালাংড়া—একতালা । যখন যে রূপে কালী রাখ গো আমারে । সকলি সফল যদি না ভুলি তোমারে। ভম্ম বিভূতি ভূষণ, কিংবা মণি কাঞ্চন। . তরুতলে বাস কিংবা রাজসিংহাসনোপরে ॥ সিন্ধু-ভৈরব। --আড়াঠেকা । যে ভাল করেছ কালি, আর ভালতে কাজ নাই। ভালঘু ভালয় বিদায় দে মা, আলোয় আলোয় চলে যাই ॥ ম| তোমার করুণ যত, বুঝলাম অবিরত ; জানিলাম শত শত, কণাল ছাড়া পথ নাই। জঠরে দিয়াছ স্থান, কেরন মা অপমান, কিসে হবে পরিত্রাণ, নরচনা ভালে তাই ॥ જitાં ૪૭:સૌ–આlg|tXR1 । শাস্তবি তোমায়ু ভাবি, সস্তাবনা নাই মা এমন । যার সুখে হল সুখী, সে যে আমার নয় তেমন ॥ পড়েছি মা যে বিপদে, স্থান দিয়ে রাখ পদে, প্রাণ যায় গে ঐ বিষাদে, বৃথা হলো আগমন ॥ গ{{t-ভৈরবী --অtড়াঠে কা। শ্বেত শতদলে কে গো, বিরজে শ্বেও বরণী । বীণাযন্ত্র করে ধর, শিরে চুড়া ত্রিভঙ্গিনী ॥ পাদ্যসুজে ভ্ৰমে ভৃঙ্গ, জিনিয়া মত্ত মাতঙ্গ । হেরিয়া হয় আতঙ্ক, শশধরে কুরগিণী ॥ সিন্ধু-ভৈরধ।--আড়াঠেকা । সংসারেরি যত সুখ, সকলি পড়িয়া রবে। জীবন জলবিম্ব প্রায়, জলে জল মিশাইবে ॥ তালার উপরে তালা, তেতালায় আর কেবা শোলে । যখন শমন ধরিবে চুলে, ধরণী লুটায়ে রবে । কেবা রাজা কেবা প্রজা কেবা অভিমান করিবে: বাজিলে সে কুচেরি কাড়া, খাড়া খাড়া যেতে হবে l সুদের মুদ গণিতেছ ভাল, আট বছরে দ্বিগুণ হল ।