পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৫৭০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


84 bo লম্বোদরজননী জগদলা । মুক্তিবিধায়িনী মাহেলী, শুস্ত নিশুম্ভ বিনাশিনী, ভুবনেশ্বরী শিবমোহিনী, ভক্তভয়বরিণী । দুষ্টদৈত্যদলবলদলনী, দয়ামায়ী দাক্ষামুণী, পদান্নত জন প্রতিপালিনী, চরণ শরণ দেহ মা জননী ॥ জংলা থাম্বাজ ঠুংরি । জয় মহাকালী কপালিনী, স্মর রে মম মন, মুণ্ডমালী ভবানী, নবনায়ুকনন্দিনী ভলভামিনী । , কজ্জল উজ্জ্বল মঞ্জুল ভাতি, ন্যকুত নীলিম নীরদপতি, নৰ্ত্তন ঘনত্তর রণমদমাতি, নরশির অসিবর তা উীতিপাণি । লক লক লেলিত, লোহিতরসন, ভীষণমূরতি শোণিত মগন, অরির ভয়ঙ্কর, ভক্তে করুণ, জয় জয় ব্রহ্মময়ী শিবরাণী ॥ স্বষ্টিবিধায়িনী, স্থিতি লয়কারিণী, পামরপাবনী, ত্রিতাপহারিণী, মুক্তিপ্রদায়িনী, ভবভয়বরিণী, তারয় তারিণী, মা—জননী ॥ | জংলা থাম্বাজ ঠুংরি । | ভজ রাধাকান্ত বংশীধারী, মনরে নিশি দিন, দীননাথ কংসারি, ব্রজবালকবান্ধব বনবিহারী। । উজ্জ্বল পদতল নিন্দি প্রবালে, নপুর বাজিত রুণু ঝুণু তলে, চুড়া চঞ্চল চুম্বিত ভালে, রাসরসিকবরে জগমনহারী । চন্দনচর্চিত-বক্ষ-বিশাল, কণ্ঠমুশোভিত-নব বনমাল, বেষ্টিত শত শত যুবতীজাল, জয় জয় ব্রহ্মগোপাল হরি ॥ ত্রিতাপহারক, দূরিতবারক, | আশ্রিতপালক, মোক্ষবিধায়ক, ত্ৰিভুবনতারক, ক্ষম মম পাতক, পদানত যাচক ধাচে মুরারী ॥ বাঙ্গালীর গনি । ঝিঝিউ আড়া। নাচ গো আনন্দময়ি মম হৃদয়মালার । তুমি ত শ্মশানপ্রিয় শ্মশান হৃদয় আমার ॥ স্বজন-বিয়োগ-চিতে, জলে সদা এই চিতে, শোক-তাপ-দুখে আছে অবিরত অন্ধকার । তুমি বিরাজিত যথা, আঁধার থাকে না তথা, তাই বলি এ শ্মশানে এস, নাচ একবার ॥ বাণে শ্ৰী মধামান । তুষারধবল জদে নীলিম নলিনী । হরসদিমাঝে আমার শুীমা মা জননী । রূপ সে তিমির রাশি, অথচ তিমির নাশি, উজলিছে ত্রিভুবন জিনি সৌদামিনী ॥ সদা মনে অভিলাস, কাটিয়ে সংসারপাশ, যতণে সৃদয়ে রাখি চরণ দুখানি ॥ -ஆরামপ্রসাদী সুর । শিবের মাগো অবিচার ভরি। মাতৃধনে ছেলেয় ফাকি, আপনি হন তার অধিকারী ॥ অমূল্য সে মাতৃধন, মুক্তিমাখা শ্ৰীচরণ, যত্নে তায় আপনি নিয়ে, রেখেছেন হৃদয়ে ধরি । উপায় নাহি যে আর, কেমনে পাব নিস্তার, যার ধন তায় ফিরে দিতে, বলে দেমা দয়া করি । পিলু জঙ্গল যত । শিবের কিম| একলারি ধন ও শ্রীচরণ, সেইট আমি জান্‌তে চাই। তা হলে আর এ অভাগীর, দেখছি কোন উপায় নাই ॥ শিব পেলেন শিবত্ব পদ, চান তিনি আর কি সম্পদ, তবু কেন ও শ্রীপদ, রাখেন একা আপন ঠাই । শুন কৃপাময়ি কালী, কাতরে তোমায় বলি, সেই শিবের দোহাই হলে দে মা, কেমনে ও চরণ পাই ॥