পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৬৭৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গিরিশচন্দ্র ঘোষ । রাখ’ মনে মল, নয় ত ভালো বরাননা, করি মান, কেন সরল-প্রাণে গরল জ্বলো, নয় ত ভালো ॥ 怡 米 米 গোলোকবিহারী সাথী, হরি বলে চল মাতি, হের রাজীব-চরণ ভাঙি, চল চুল ওলো পোহাল রাতি, যুবতী,কোথ ভকতি, মনে সন্দ করা নয় যুক্তি, মুমতি তুমি সতী— তোমার কারণে,গহন বনে, বনকুসুম-মালো, আঁখি বাক, বাক পাখা, এগ তোরি ভরে বাকী কালে বনমালে| ॥ 来源 米 米 ধীর গহনে মঞ্জীর-ধ্বনি, উঠে পুনঃ পুনঃ শুন বিনোদিনী, হেলিছে তুলিছে চলিছে খাম, ফিরে ফিরে তোরে চায় অবিরাম, ভুবনমোহন ঠাম ; দূরে দূরে চলে ধীরে ধীরে, মঞ্জীর রুণু মিলে সমীরে, চাহে ফিরে ফিরে,— বাল, কুল পাবি লো অকুল নীরে, দেখ ঢেউ দে উঠে রূপের আলে, গিরিধারী শুভকারী, কেন জড়িয়ে রাখ’ সন্দজালো, রূপে আলো। दिख{म-दोंviष्ठांठा । শিব দে শশিশেখর শিবে শিব-সীমস্তিনী । ভুল না ভুবনেশ্বরী ভীতচিত-বিভাসিনী। স্মরি পদ হররাণী আশ্ৰিতে অভয় দানি, তোমা বিনা মাহি জানি জননী— দেহি অভয়া অভয় বাণী, প্রসাদ প্রসন্নময়ী প্রপন্নে পদদায়িনী ॥ भल्लांब बिडों-ग्निडांठौ । ধিয়া তাধিয়া নরমালী। ঘোরাননা রক্তদশনা রণাঙ্গন করালাঁ। 豊b"> यं यं शम्, विभूनि खाज, প্ৰলয় জলদ-ঘন গভীর ভাষ, দন্ত বিনাশ, আমুরহাস, কোটি অরুণ বিকাশ, মানস সকাশ, আশ্রিত আশ, যামিনী রূপিণী,— অম্বে জগদম্বে, জয়ন্তী জয় কালী। অম্বিকে ত্র্যম্বক-কামিনী কপালী ॥ শঙ্করা-মিশ্র—একতালা । হের হর-মনমোহিনী কে বলেরে কালো মেয়ে, আমার মায়ের রূপে ভুবন আলো, চোক থাকে তো দেখ না চেয়ে ॥ বিমল হাসি ক্ষরে শশী, অরুণ পড়ে নখে খসি, এলোকেশী শুাম ষোড়শী ;— ভ্রমর ভ্ৰমে, কমল ভ্ৰমে, বিভোর ভোলা চরণ পেয়ে ॥ o ধিটি খাম্বাজ। করেছি সাধের বাগান সখ করে। হেথা নেশা কাটে, পিয়াস মেটে, আমোদ ছোটে তবৃতরে ॥ 酶 হেথায় পাতায় পাতায় ফুলে ফুলে দেখে যে খেলা, তার যায়ু মনের মলা, হেথা ভালাবাসায় ভাসিয়ে নে যায় গুমোর ছলা, হেথা উজান ভাটা চলে কানে কান, ঢেউয়ে ঢেউ ফঁাপিয়ে তেলে ডোবায় অভিমান। কান করে কি থাকৃতে পারে, ভুলে যায় আপন পরে ;– পরের ব্যথা বুকে নিয়ে, বুকের ব্যথা যায় সরে ॥ ইমন-কল্যাণ-খেমৃট। কেমন ফুল পরেছে মেদিনী। তারার হারে তাইত সেজে, দেখতে এল যামিনী। যামিনী মোহিনী বেশে, দেখে চাদ ধায় ভেসে ছেসে, তাই মেদিনী মনমোহিনী, গরুত্বে আমেদিনী!