পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৭১০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


والا وم ' খাম্বাজ-একতালা । ওলে রেখে দে, সখি, রেখে দে, মিছে কথা ভালবাসা। সুখের বেদন সে হাগ যাতনা বুঝিতে পারি না ভাষা | ফুলের বাধন, সাধের কাদন, পরাণ সপিতে প্রণের সাধন, “লহ’ ‘ লহ’ ব’লে পরে আরাধন পরের চরণে আশা ॥ তিলেক দরশ পরশ মাগিয়া, বরষ বরষ কাতরে জাগিয়া, পরের মুখের হাসির লাগিয়ু অশ্রু সাগরে ভাস । জীবনের মুখ খুজিবারে গিয়৷ জীবনের সুখ নাশ । 安 -1} | যেও না ধেও না ফিরে ; দাড়াও, বারেক দাড়াও ঈদয়-আসনে । চঞ্চল সমীর সম ফিরিছ কেন কুসুমে কুসুমে কাননে ক'ননে । তোমায় ধরিতে চাহি ধরিতে পরিনে, তুমি গঠিত যেন স্বপনে ॥ এস হে, তোমারে বরেক দেখি, ভরিয়ে আঁখি ধরিয়ে রাখি যতনে । প্রাণের মাঝে তোমারে ঢাকিব, ফুলের পাশে বঁধিয়ে রাখিব, তুমি দিবস নিশি রহিবে মিশি, কোমল প্রেম-শয়নে ॥ বেহাগ—ণেমূট।। ওকে বল, সখি, বল, কেন মিছে করে ছল। মিছে হাসি কেন, সখি মিছে আঁখি-জল। জানিনে প্রেমের ধারা, ভয়ে তাই হুই সার, কে জানে কোথায় মুলা, কোথ হলাহল । কঁদিতে জানে না এর কাদাইতে জানে কল ॥ মুখের বচন শুনে মিছে কি হইবে ফল। প্রেম নিয়ে শুধু খেলা, প্রাণ নিয়ে হেলাফেল, ফিরে যাই এই বেল, চল, সখি চল ॥ বাঙ্গালীর গান। l | | জয়জয়ন্তী—স্বীপতাল । রে দেখাতে পারিনে কেন প্রাণ। (খুলে গো) কেন বুঝতে পারিনে হৃদয়-বেদন, কেমনে সে হেসে চলে যায়, কোন প্রাণে ফিরেও না চায়, এত সাপ এত প্রেম করে অপমান । এত ব্যথাভর ভালবাস কেহ দেখে না, প্রাণে গোপনে রহিল, | এ প্রেম কুসুম যদি হত প্রাশ হতে তুড়ে লইতাম, র, চরণে করি তাম দান । বুঝি সে তুলে নিত না, শুকতি অনাদরে, তবু তার সংশয় হত অবসান । உம்_து কফি —কা ওয়ালী । ভালবেসে যদি সুখ নাছি তবে কেন, তবে কেন মিছে ভালবাস । মন দিয়ে মন পেতে চাহি, ওগো কেন। ওগো কেন মিছে এ দুরাশা ৷ হৃদয়ে জালায়ে বাসনার শিখ, নয়নে সাজায়ে মায়া-মরীচিকা, শুধু ঘুরে মরি মরুভূমে; ওগো কেন, ওগো কেন, মিছে এ পিপাসা। আপনি যে আছে আপনার কাছে, নিখিল জগতে কি অভাব আছে, আছে মন্দ সমীরণ, পৃপবিভূষণ, কোকিল-কূজিত কুঞ্জ ; বিশ্বচরাচর লুপ্ত হয়ে যায়, একি বের প্রেম অন্ধ রাহু প্রায়, জীবন যৌবন গ্রাসে ; তবে কেন, তবে কেন মিছে এ কু-আশা। মিশ্র ঝিঝিট-খেম্টা। সুখে আছি মুখে আছি, ( সখা আপন মনে ) কিছু চেয়ে না দূরে ঘেও ন', মুধু চেয়ে দেখ শুধু ঘিরে থাক কাছাকাছি।