পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৭১২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


• Woo, বাঙ্গালীর গান। " সাহান!—ষৎ । মথুরবসন্তু এসেছে মধুর মিলন ঘটাতে। মধুর মলয়-সমরে মধুর মিলন রটাতে ॥ কুহক লেখনী ছুটয়ে কুসুম তুলিছে ফুটায়ে, লিখিছে প্রণয়কাহিনী বিবিধ বরণ ছটাতে ॥ হের পুরাণ প্রাচীন ধরণী, হয়েছে শুমলবরণী, যেন যৌবনপ্রবাহ ছুটেছে কলের শাসন টুটাতে পুরাণ বিরহ হানিছে, নবীন মিলন আনিছে, নবীন বসন্ত আইল নবীন জীবন ফুটাতে। মিশ্র-বিভাব-একতাল।। এর, মুখের লাগি চাহে প্রেম, প্রেম মেলে না, শুধু মুখ চলে যায়। এমনি মায়ার ছলনা। এরা ভুলে যায় করে ছেড়ে করে চায় । তাই কেঁদে কাটায় নিশি, তাই দহে প্রাণ তাই মান অভিমান, g তাই এত হায় হায় ॥ প্রেমে মুখ দুখ ভুলি তবে মুখপার। সখি চল, গেল নিশি স্বপন ফুরাল, মিছে আর কেন বল । শশী ঘুমের কুহক নিয়ে গেল অস্তাচল। প্রেমের কাহিনী গান, হয়ে গেল অবসান। এখন কেহ হাসে কেহ বসে ফেলে অশ্রুঞ্জল । cवशर्श-यष्रिर्षभृgi । ওগো শোন কে বাজায় । বন ফুলের মালার গন্ধ বশীর তানে মিশে যায় ॥ অধর ছুয়েলশী খানি চুরী করে হাসিখানি, বঁধুর হাসি মধুর গানে, প্রাণের পানে ভেসে যায় । ওগো শোন কে বাজায় ॥ কুঞ্জবনের ভ্রমর বুঝি। রাণীর মাৰে গুঞ্জরে, বকুলগুলি আকুল হয়ে *, ... বাণীর গানে মুরে; মুঞ্জি বাতাস, কাণে আসে কঁদে প্রাণ স্বাক্ষণে ঐ ময়ুর বিধু কাহার পনেহেসে চায়। গুণ পোনৰে ৰাজা। | ििश्र-4ंखणिt । ওগো এত প্রেম আশা প্রাণের ভিয়াস, কেমনে আছে সে পাশরি। তবে সেথাকি হাসে না চাদিনীঘামিনী, সেথা কি বাজে না বাঁশরী ॥ সখি, হেথা সমীরণ লুটে ফুলবন, সেথা কি পবন বহে না । সে যে, তার কথা মোরে কহে অনুক্ষণ, মোর কথা তারে কহে না | যদি, আমারে আজি সে ভুলিবে সজনি, আমারে ভুলালে কেন সে। ওগো এ চির জীবন করিব রোদন, এই ছিল তার মানসে ॥ যবে কুসুম-শয়নে নয়নে নয়নে, কেটেছিল মুখ-রাতি রে। তবে কে জানিত তার বিরহ আমার, হবে জীবনের সাথী রে ॥ যদি মনে নাহি রাখে মুখে যদি থাকে, তোরা একবার দেখে আয় । এই নয়নের তৃষা পরাণের আশা, চরণের তলে রেখে আয় ॥ আর নিয়ে যা রাধার বিরহের ভর, কত আর ঢেকে রাখি বল । আর পরিস্ যদি ত আনিস্ হরিয়ে, এক ফেঁটা তার আঁখি-জল। না না এত প্রেম সখি ভুলিতে যে পারে, তারে আর কেহ সেধ না । আমি কথা নাহি কব, দুখ লয়ে রব, মনে মনে সব বেদন ॥ ওগো মিছে মিছে, সখি, মিছে এই প্রেম মিছে পরাণের বাসনা। ওগো সুখ-দিন হায় ঘৰে চলে যায়, আর ফিরে আর আসে না । ॥ मिथ ६थ्द्रचेौ-वाकर्षशृङ्गै। হেলাফেলা সারা বেল, এ কি খেলা আপন গনে।