পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৮২২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


^\S) a হয়ে জননী বধিবে কি সস্তানে । কেন শরাসন, করেছ ধারণ, বিনাশিতে দাসে, এত কষ্ট কেন ; শিবরাণী শুমা, ভুলেছ কি মা, সদা বাধা আছি ঐ চরণে ॥ বেহাগ-একতালা । বাসনা এই মনে কাতুরে জানাই মা তোমায়, চরণে স্থান দিও মা আমায়, বলি তাই আমার নাই অন্ত বাঞ্ছ এক্ষণে। হর র্যারে না পান ধ্যানে, ব্ৰহ্মা ভাবেন বন্ধৱোনে গে', মার কি ভাগ্যোদয়, অনায়াসে, পেলাম সেই ধনে । বিশ্বের জননী তুমি, বিশ্বমাঝে আছি আমি, তোমায় মাজেনে। তুমি নাম ধরেছ নিস্তারিণী, দীনতারা পতি পাবনা গো, জানি নামের গুণ তারিলে এ দীন ব্রজমোহনে ॥ তি ওট । রামচরণে মজ মন আমার ; হবে অনা সে ভবfসন্ধু অপারে পার । অনিত্য ধনজন, নিশি-স্বপন যেন, ভাব রে সদ সদানন্দের ধন নিত্যধন ; একি রে চমৎকার, কেবা কার পরিবার, (ওকি) জান ন মায়াতে মোহিত সংসার । বেহাগ --পাণপত!ল । দেখরে মন নিশ্চিত, হইল চিত চঞ্চল, আর কেন বিলম্ব গোপাল, চল চল রে ব্রজে চল । ভেবে দেখ তুমি কালি যে,এসেছ বাছা কি বলিয়ে, কালি আদিবে বলিয়ে, তোমার কত কাল গেল গেল ॥ হারা হয়ে বে নীলমণি, যেন কে হরে নিল মণি, সাপিনী তাপিনী রাণী মা তোর ধরাতলে— | বাজালীর গান । তারা-সাধনের ধনে, হারা হয়ে হয়েছি তার হার| তুমি নয়ন-তারা ভিন্ন, তার আর কি আছে সম্বল৷ বেহাগ । প্রাণ যায়, আজ কোথায়, রহিলে প্রাণের নন্দন । বিলম্ব কি কারণু ॥ বাছা কি মনে নাই তোমার, তুমি যে সবে ধন আমার, ন। হতে নিত্য প্রদোষ, তুমি ত কুটীরে এস, কি বল আকুল আজ ন হেরে তোমার চাদবদন মম দেহের জীবন, অন্ধের যষ্টি যেমন, দরিদ্রেরই ধন না পেলে আজ তোমাধনে, । নাহি প্রয়োজন এ পাপ প্রাণে রে, আমি ত্যজিব-অনলে কিংবা জীবনে জীবন ॥ ধtশ্বজি ~মধ্যমান । কঠিন হইয়ে, তোমারে রাখিয়ে, কেমনে যাইব প্রেধুসি । তুমি কি ভাব, আমি কি ভাবিনে, বলে কি জানাব যে দুঃখ জীবনে, বিরহ-যন্ত্রণ সহিব কেমনে, তাই ভাবি দিবানিশি ॥ " যে দেখি বদন মলিন তোমার, রাহুগ্রস্ত যেন পুর্ণ শশধর, দুঃখানলে দহে সতত অন্তর, আঁখিনীরে সদা ভাসি ॥ d 曹f জংলা থাম্বাজ—কাওয়ালী। কাননে দেখ ফুল ফুটেছে নানা জাতি । শোভা আতি । জাতি যুথী গন্ধরাজ রজনীগন্ধা গোলাপসেঁউতি, কৃষ্ণকেলী চাপা চামেলা জুই, ভুই-কনক-চাপা মল্লিকা মালতী। করবী জবা কামিনী, সেফলিম স্থৰ্যমণি,৭, স্থলপদ্ম কঙ্গে বকুল জলে পদ্মিনী, কিংশুক কাঞ্চন, পলাশ আর রজন, হেরে গোল গোল গোলাপ গেদী,