পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৮৭১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রায় কালীপ্রসন্ন ঘোষ । গৌরী-তেতাল | একি হেরি ভয়ানক ভব-পাথার। অবিরাম-নিঃস্বনে, খেলিছে হিল্লোল, গর গর গর্জনে, চমকিছে প্ৰাণ । পারে নিতে কাণ্ডারী, করুণানিধান ; সবে তীরে ডাক রে, হৃদয় ভরিয়ে । আলেয়া-আড়। কি বলে তোমারে আমি করিব স্মরণ। কত শত বার তোমায়ু করেছি হেলন ॥ ভক্তিপথে সদা রব, ভক্তিব্ৰত আচরিব, পুনঃপুনঃ মনে এই, করেছি মনন। কিন্তু নাথ অন্তৰ্য্যামী, সকলি জানহে তুমি, জান কত বার মম, হয়েছে পতন ॥ প্রভো তব নাম নিলে, শুনেছি পাষাণ গলে হায় আদ্র নাহি হয়, এ পাপ-নয়ন। কি আমি বলিব আর, হবে যা ইচ্ছা তোমার, এই করে যেন নাহি হারাই চরণ। প্রসাদী মুর –একতাল।। কি ভুলে মন রলে ভুইলে। কেন পরাৎপরে পাসরিলে | যাহা হতে রে পাষাণ, সৰ্ব্বস্ব তব লভিলে। বল কোন প্রাণে রে, তাহায় ছেড়ে, মায়ার নীরে মগ্ন হলে ৷ চক্ষু পেলে যাহা হতে, চখে তারে না দেখিলে। (তোরে ) যে দিল জ্ঞান, র্তায় তৃণ-জ্ঞান, এমন অজ্ঞান কোথায় মিলে | প্রসাদী মুর -একতাল।। বুধ জন্ম নিলেম ভবে। তরী ডুবাইলেম পাপাৰে। ভেবেছিলেম এই ভাবে, ভোগে মুখে দিন যাবে, হায় না চিন্তিলেম, না বুঝিলেম, কিছুই ইহার নাহি রবে। ভুলিলেম ইষ্ট নাম, প্রশংসার কল-রবে। বল পরিণামে,এই মুনামে, #है कौऊिँउ कि एदेव ॥ арнинар } | ጓጫ ; ঝিঝিট-খাস্বাজ—একতালা। প্রভাতী আরতি র্তার, কর মনোমন্দিরে। জাগরিত ত্রিভুবন, জাগ্রত হের তপন, জাগরে পৃথবীবাসী, ত্যজ নিয়—জাগরে। জ্বাল রে প্রজ্ঞার দীপ, জ্বালাও প্রীতির ধূপ, গাধ রে ভক্তির হার, তার অর্চনা তরে। জয় দয়াময় ব’লে, ভাসিয়ে নয়ন-জলে, বাজায়ে চিত-মুরজ, তার নাম গাওরে। বেহাগ—আক্ৰীড়া । রে শশাঙ্ক, মনোহর বল না আমায়। এমন মোহন রূপ পাইলে কোথায়? হাসি না অমৃতরাশি, হাসিছ কি চারু হাসি, ভাসিছ আনন্দ-নীরে, দেখে প্রাণ জুড়ায় ॥ মুখী দুঃখী ধরাতলে, নিদ্রায় পড়েছে চলে, জাগিছ গগনে তুমি, প্রহরীর ন্যায়। • তুতি-হৃদয় আমি, দেখাও আমারে তুমি, এ রুচির রূপ-রাণি যে দিল তোমায়। জংলী-খয়রা । কোথা পাতক-হরণ। এসেছে হে পাপী, শুনে তব নাম, ভরসা তব চরণ ॥ সম্বল দয়াল, দয়া তোমার, তোমা বিনা ভবে নাহি নিস্তার, বিনামূল্যে দীনে করহে পার, রবে কীৰ্ত্তি জুড়ি ভুবন ॥

  • ख्द्रदी-१९ ।। নাথ, কি দিব বল হে চরণে তোমার। দীন দুঃখী পাপী আমি, কি আছে আমার। না জানি অৰ্চনা স্তুতি, নাহিক তোমাতে মতি,

হৃদয়ে কিছুই নাহি, দিতে উপহার। দয়ায় পরশে গ'লে, কাদি দয়াময় বলে, এস হে দয়ার নিধি, হর দুঃখ-ভার। २,णाi१-६ंशद्द् ि।। হারে কেমনে ভুলিয়ে তীরে। ডবিয়ে রয়েছি ভব-সংসারে । ,