পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৯০৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দ্বিজেন্দ্রলাল রায় । - W.Y. A “ এ জগতে এক বলি, কঁদ দুঃখে দিবানিশি, । दांtभभै-चाप्लl। . নয়নের জলে শ্লেরা ভাসাষ্ট্রয়ে ধরাতল ॥ কে কাছি কে কঁছি একাকিনী কাণ রে, কঁ দ রে আধ্য র্কাদ অনিবার। : বসি এ নির্জন স্থানে। পেয়েছিল একদিন যবে প্রাণভরে। কেন বাগাইছ মূহ এত সকরুণ গানে। হাদিতিস্ আর্ঘ্য তুই জগত-ভিতরে, এ যে করুণ তান, কি ব্যথা পেয়েছে প্রাণ, সে দিন নাহিক আর, কঁদ তবে অনিবার, প্রতি উচ্চ অনেম কারুশ গলিছে কণে। নিবিধে জীবন-দীপ নিবিবে না চিতনল । নিশীথে ঝরিলে অশ্রু বিবাদে কমল, BBB BD DD DD BBBS SBB BB BBB BB BBSBBS கம்-கம் বৃথাই কি তুমি দুখে, কঁদিলে সজল মুখে, বাগেী—আডা । মুছাবে না কি ও অশ্রু তপন কিরণ-দানে। (কেন ভগীরথি, ) কেন ভাগীরথি, হেরিয়ে দুখিনী আজ এ দশা তোমার, হাসিয়েহাসিয়ে নচিয়ে নাচিয়ে চলিয়ে যাও গো ! বিদীর্ণ দারুণ শোকে হৃদয় আমার, ঢলিয়ে ঢলিয়ে সৈকত-পুলিনে, বল কোন জন্মফলে, আসিলে এ পাপ-স্থলে, বহি এ ভারতে কি মুখ পাওগো ॥ যথা পূজ্য দেশাচার বধিয়ে রমণী-প্ৰাণে। নিরধি মা আজ ভারতের দশা, to a to এ দুখে আনন্দে কি গান গাও গো । I সাহান!—আড়া। שפר" কি মুখে বল মা নীলাম্বর পরি, হৃদয় চিরিয়ে মোর দেখ কত ভালবাসি। হরষিত মনে সাগরে ধাও গো | ভেব না কঠিন, যদি নাহি তাহে পরকাশি৷ অধীন ভারতে বহি (ও) নাম আর, কি ফল প্রকাশ আর, তুমি নহে আপনার, একলঙ্ক-রেখা মুছায়ে দাও গো। জান কি তোমার লাগি কত চিত্ত অনুরাণী ॥ উথলি তটিনী গভীর গরজে, জান কি রাখে এভম্ম কি ফুলঙ্গ আবরিয়ে, সমৃত ভারত-হৃদয় ছাও গো ॥ তুমি আপনার নয়, এ কথা কি প্রাণে সয়, கம் কি করি বিমুখ বিধি কাদি তাই লুকাইয়ে, জাশীশ্বরী—অড়া । বিষাদে একাকী সদা নয়ন-সলিলে ভাঙ্গি । কেঁদ না রে অনাখিনি, কেঁদ না কেঁদ না আর । হৃদয় চিরিয়ে মোর দেখ কত ভালবাসি। পারি না হেরিতে অশ্রু আর নয়নে তোমার ॥ | இ) கற সহ অবনতমুখে, নীরবে মনের দুখে, ঘুমাস নে ঘুমা নে, রে আর। দারুণ অনলদাহ হৃদয়েতে অনিবার। দেখ রে কে লয়ে গেল প্রতিমা সোণার ॥ ভতিত স্বৰ্গীয় শোভা যে চারু আননে, নিশীথে নিদ্রার কোলে, ছিলি শুয়ে সব ভুলে, ভাসিত জিবি-জ্যোতিঃ যে যুগল লোচন, পেলি নেদেখিতে চুরি স্বর্ণপ্রতিমার। বিষন্ন সে মুখ হুেরি, 6न नश्वं न অশ্রুবারি, দেখ রে, নয়ন মেলি দেখ দেখ একবার। নিরধি উথলি মম ধার শোক-পারাবার। | যাদিগে প্রহরী-বেশে, রেখেছিলি দ্বারদেশে, • সাজিতে নবীন বেশে ভূষিত রতনে, কলহে প্রমত্ত হ’য়ে ছেড়ে দিল দ্বার ॥ বধিতে চিকুরদমে আনন্দ যতনে, দেখ রে, হরিল তোর প্রতিমা স্বাধীনতার। আঁজি মলিন সে বাস, আলুলিত কেশপাশ, যাহারে ভকতিভরে, পূজিক্তিস্ সমাদরে, পারে নাহেরিতে মাতঃছায় হাৰ নয়নে আমার। হেরিতে সে গৃহলক্ষ্মী পাবি কি রে স্নার। কেঁদ মারে অনাখিনি কেঁদ মা আর ॥ হায় রে, প্রতিমা গেল গৃহ করি অন্ধকার। ş səsas ş»