পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৯৩৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


*88 দ্বিতীয় নগর সঙ্কীর্তন । দয়াময় নাম, বল রসনায় অবিশ্রাম, জুড়াবে প্রাণ নামের গুণে। জীবের ত্রাণ, সুখশাস্তি, তার চরণে; বল কে আছে আর, করিতে পার, সেই দীনকাণ্ডারী বিনে । সেই দীননাথ পাপীর গতি, কাঙ্কালের জীবন, নিরুপায়ের উপায় তিনি অধমতারণ। দিনান্তে নিশাস্তে কর তার নাম সঙ্কীৰ্ত্তন, নামে মুক্তি হবে শাস্তি পাবে,যাবে আনন্দ-ধামে । । সুধামাখা দয়াল-নাম কররে গ্রহণ, পাপীর দুঃখ দেখে এ নাম পিতা করেছেন প্রেরণ ; থাক চির দিন ভক্ত হয়ে, এ নাম রাখ গেখে হৃদয়ে, (ছেড় না রে ) স্বর্গের সম্পত্তি, এ ধন রেখ অতি যতনে । দেখ দেখ চেয়ে দেখ পিতা দড়িয়ে দ্বারে, ডাকৃছেন মধুর স্বরে, স্নেহ-ভরে প্রেমামৃত লইয়ে করে, পিতার শান্তি-নিকেতনে যেতে, এসেছেন আমাদের নিতে, চল সবে আনন্দেতে, নামের ধ্বনি করি বদনে মুখে দয়াল বল দীনদুঃখ ভাই সবে মিলি, সেই মধুর নামে পাষাণ গলে, প্রেমসিন্ধু উথলে, এ নাম সাধুর হৃদয়ের ধন, পাপীর অবলম্বন, এ নাম নগরবাসী ঘরে ঘরে গাও আনন্দ-মনে ॥ খাম্বা জ—একত্তাল । কত ভাল বাস গো মা মানব-সস্তানে । ( পাপী ) মনে হ’লে প্রেমধারা ঝরে দু’নয়নে ॥ তব পদে অপরাধী, আছি আমি জন্মাবধি, তবু চেয়ে মুখপানে, প্রেম-নয়নে ডাকিছ মধুর বচনে ; বার বার প্রেমভরে ডাকিছ গো মা-- প্রেম-বাছ প্রসারিয়ে, স্নেহে বিগলিত হয়ে আর আঁ। আর বলে, অপরাধ ক্ষম করে, ... }ৰপ্ৰেমভরে, বাঙ্গালীর গান। ( ও মা আনন্দময়ী) জীবের দশা মলিন দেখে, আমাদেরই জন্তে, স্বৰ্গ-নিকেতনে গো মা। কত মুখ শান্তি, অতুল সম্পত্তি, রেখেছ যতনে ; নিজ হাতে সাজাইরে বিবিধ বিধানে । Q তোমার প্রেমের ভারবহিতে পারি নে গো আর, প্রাণ উঠিছে কঁদিয়া, s হৃদয় ভেদিয়া তব স্নেহ, দরশনে, লইলু শরণ মাগে। তব শ্ৰীচরণে । ঝিঝিট—মধ্যমান । ওহে ধৰ্ম্মরাজ বিচার পতি, | তোমার বিধি কে লজিতে পারে। কে কোথা হয়েছে সুখী অধৰ্ম্ম-পাপ আচারে । দর্পহারী স্থায়বান, পাষণ্ডদলন নাম, নাহি কারে পরিত্রাণ, তোমার মৃক্ষ বিচারে। দুৰ্ম্মতি মানবগণে, কুকৰ্ম্ম করি গোপনে. পায় দুঃখ পরিণামে, কৰ্ম্ম-ফল ভোগ করে। | | | | | : | তুমি দণ্ডদাতা পিতা, মঙ্গলময় বিধাঙা, দণ্ড দিয়ে মুক্ত কর এ অধম মহাপাপীরে ॥

ঝিঝিট—পোস্ত ।

গভীর অতলস্পর্শ, তোমার প্রেম-সাগরে, ডুবিলে এক বার কেহ আর কি উঠিতে পারে প্রেমিক মহাজন যারা, না পেয়ে কুল কিনারা, হ’ল চিরমগন, ফিরিল নLআর সংসারে । কত সুখ-প্রলোভন, প্রেমশান্তি মহান অনন্ত অগণন, রেখেছ সঞ্চিত করে। r নিত্য-মুখ শান্তি দিয়ে, আনন্দে ভুলাইয়ে, রেখেছ তাদের চিত্ত একে বরে মুগ্ধ করে ॥ | கற fৰভায—একতাল।। সংসার-মন্দিরে, প্রতি বারে বারে, করি’ছ বিরাজ ও গে৷ মা জননি ॥ পরম যতনে, পুত্র-কন্যাগণে পালি’ছ আদরে দিবস-রজনী ॥ মহা শক্তি-রূপে নারীর হৃদয়ে, মুকোমল মাতৃ-ভাব প্রকাশিয়ে ; করিলে মোহিত মানবের চিত, . জননি গে৷ তুমি দেখলে মুকুতি ভুবনমোহিনী