পাতা:বিবিধ কাব্য - মাইকেল মধুসূদন দত্ত.pdf/১১

এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।




বর্ষাকাল

গভীর গর্জ্জন সদা করে জলধর,
উথলিল নদনদী ধরণী উপর।
রমণী রমণ লয়ে, সুখে কেলি করে,
দানবাদি দেব, যক্ষ সুখিত অন্তরে।
সমীরণ ঘন ঘন ঝন ঝন রব,
বরুণ প্রবল দেখি প্রবল প্রভাব।
স্বাধীন হইয়া পাছে পরাধীন হয়,
কলহ করয়ে কোন মতে শান্ত নয়॥


হিমঋতু

হিমন্তের আগমনে সকলে কম্পিত,
রামাগণ ভাবে মনে হইয়া দুঃখিত।
মনাগুনে ভাবে মনে হইয়া বিকার,
নিবিল প্রেমের অগ্নি নাহি জ্বলে অার।
ফুরায়েছে সব অাশা মদন রাজার
অাসিবে বসন্ত অাশা—এই অাশা সার।
অাশায় অাশ্রিত জনে নিরাশ করিলে,
অাশাতে আাশার বস অাশায় মারিলে।
সৃজিয়াছি অাশাতরু অাশিত হইয়া,
নষ্ট কর হেন তরু নিরাশ করিয়া।
যে জন করয়ে আশা, অাশার অাশ্বাসে,
নিরাশ করয়ে তারে কেমন মানসে॥