প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:বিষাদ-সিন্ধু এজিদ্‌-বধ পর্ব.pdf/২৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Հo এঙ্কিা-বধ পৰ্ব্ব । • नश्वांश्वांशे अउिदांगन कब्रिज्ञा दिशांग्र इदैन । श्रीबौ ब्रश्ञान अॉब्र অপেক্ষা করিলেন না । রাজপুরী মধ্যে অগ্রে পদাতিক সৈন্য প্রবেশের অল্পমতি প্রদান করিলেন। তাহার পর অশ্বারোহী বীরগণ পুরী মধ্যে প্রবেশের অনুমতি পাইলেন। তৎপর মহা মহারীগণ এজিদ পুর মধ্যে প্রবেশ করিতে অগ্রসর হইলেন। বীর দ্বাপে জয়-ঘোষণা করিতে করিতে রাজপুরী মধ্যে সকলেই প্রবেশ করিলেন। সে বীর দাপে, এবং জয় রবে রাজ প্রাসাদ কঁাপিতে লাগিল। সিংহাসন টলিল। সে রব দামস্কের ঘরে ঘরে প্রবেশ করিল। গাজী রহমান, মসহাব কাঙ্ক, ওমর আলী অন্যান্য রাজন্যগণ, बईরাজাধিরাজ জয়নাল আবিদিনকে ঘেরিয়া “বেস মেল্লাহ’ বলিয়া পুরী মধ্যে প্রবেশ করিলেন । পুরী মধ্যে একটা প্রাণীও র্তাহাদের নয়নগোচর হইল না। সকলই রহিয়াছে, যে খানে যাহা প্রয়োজন, সকলই পড়িয়া রহিয়াছে, এখনই যেন অধিকারীর কোথায় চলিয়া গিয়াছে। প্রাঙ্গণে উপস্থিত হইলেন । সেখানেও ঐ ভাব। কেহই নাই। অস্ত্রধারী অশ্বারোহী, পদাতিক প্রভৃতি যাহা কিছু নয়নগোচর হয়, সকলই তাহদের । ক্রমে তৃতীয় প্রাঙ্গণে উপস্থিত। সেখানেও ঐ কথা । গৃহসামী যেখানে যেরূপ সাজান, ঠিক তাঁহাই আছে। কোনরূপ রূপান্তর হয় নাই ৷ এখনই ছাড়িয়া—এখনই তাড়াতাডী ফেলিয়া যেন কোথায় চলিয়া গিয়াছে । এইরূপ প্রাসাদের পর প্রাসাদ, কক্ষাত্তরে কৃক্ষ শেষে অন্তঃপুর মধ্যে প্রবেশ করিলেন। কি আশ্চৰ্য্য—সেখানেও সেই ভাবণ সকলই আছে,-রাজপুরী ময়ে যাহা যাহা প্রয়োজন, সকলই আছে। কিন্তু তাহদের সৈন্ত সামস্ত-তুরী ভেরী নিশানধাৰীগণ ব্যতীত অন্ত কাহাকেও দেধিতে পাইলেন না। কক্ষে কক্ষে সন্ধান করিয়াও জনপ্রাণীর দেখা পাইলেন না । ভাবে বোধ হইল, যেন কোন গুপ্ত স্থানে লুকাইয়া রহিয়াছে। কোথায় সে গুপ্ত স্থান ? তাহাৰু কোন সন্ধান করিতে পাৰিলেন না। জয়ের পর—যুদ্ধজয়ের পর, বিপক্ষ রাজপুৰী,প্রবেশের পর,— রাজগ্রাসাদ অধিকারের পর-ধাহা হইয়া থাকে, তাহাই হইতে আরম্ভ হইল। দুই হন্তে লুট। প্রথম সৈষ্টগণের লুট। যে যাহা পাইল, সে তাহাই আপন অধিকারে আনিল। কত ওগু-গৃহের কপাট ভর হইতেছে, ইর, মতি, মণি,