প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:বিষাদ-সিন্ধু এজিদ্‌-বধ পর্ব.pdf/৪০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


এজিদ-বধ পৰ্ব্ব । }{ وان (دية য়াছেন । রাজপুরী পর হস্তগত হইলেও পরিবার পরিজন, কখনই পর इख গত হইবে না । দামস্ক পুরী তন্ন ত্বর করিলেওঁ, তাহাদের বিষাদিত কায় চক্ষে পড দূরে থাকুক, ছায়া পৰ্য্যন্ত নজরে আলিবে না। এখন উদ্যান পৰ্য্যন্ত যাইতে পারিলেই আর পায় কে। লতা পুপ জডিত কুঞ্জ পর্য্যস্ত ' যাইতে পারিলেই, হানিক দেখিবেন যে, এজিদ লত। পাতায মিশিয়। গেল । , পরমাণু আকারে পুপ রেণুসহিত মিশিব পুষ্প দলে, দেহ ঢাকিয়া ফেলিল । যাহাই হউক, উদ্যান পৰ্য্যন্ত যাইতে পারলেই এজিদের জয়।. নগবও নিকটবৰ্ত্তী। এজিদ জন্মের মত দামঙ্গ নাশরের পতন-দৃশু দেখিয়া চলিলেন। দেখিতে দেপিতে নগরেব স্বরঞ্জিত সিংহদ্বাবে আসির উপস্থিত হষ্টলেন। দ্বার অবারিত, এইবি বর্জিত। মৃত্যু দেহে, রাজপথ পরিপূরিত । শখ হারি পশু পক্ষীগণ মহা আনন্দিত | চক্ষের পলকে দ্বাব পাব হইয়। নগৰে প্রবেশ করিলেন। রাজপুরী চংে পড়িতেই দেখিলেন, যে উচ্চ উচ্চ মঞ্চে নান৷ আকাবে নুতন পতাকা সকল, গগণস্থ লোহিত আভাষ মিশিয়া অদ্ধ চন্দ্র এবং পূর্ণ তার প্রত্যক্ষ ভাবে দেখাইয়া, দামস্কেব পতন-দৃশু দর্শকগণকে দেখাইতেছে। বিজয়-বাজন। তুমুল বেগে কর্ণে আসিতেছে। ক্রমেই নিকটবর্তী । রাজপুরী অতি নিকটে । বন্দীগৃহ দূর হইলেও দৃষ্টিব অদুর নহে। চক্ষে পড়িল। এজিদের চুক্ষে দুরের বন্দীগৃহ পড়িতেই মন যেন কেমন করিয়া চম্কিয়া উঠিল । এমন, শঙ্কট সময়েও এজিদের মন যেন কেমন বরিয়া উঠিল। ধেমগু হৃদয়ের নিভূত ষ্ঠানে লুকাইয়া ছিল, সরিয়া আসিল । কিন্তু বেশীক্ষণ রহিল না। চিত্তক্ষেত্র হইতে সে, রূপরাশী একেবারে সবিয়া গেল । নামটী মনে উঠিল। মুখে ফুটিল ना' দীর্ঘ নিশ্বাসও বহিল না। প্রমাণ হইল, প্রমদা অপেক্ষা প্রাণে দারই সমধিক প্রবল। এই সামান্ত মন্তমনস্কে অশ্বগতি কিঞ্চিং শিথিল হইল। মোহম্মদ হানিফ এই অবসরে ঐ পরিমাণ অগ্রসর হইয় গভীর গর্জুনে বলিতে লাগিদেল। "জিদ মনে কাছ যে, পুত্র মধ্যে প্রবেশ করিলেই আজিকার মত বাচিয়।যাইবে। ੀਂ। কখনই মনে করিও না । এই সন্ধ্যা-প্রদীপ জ্বলিতে জলিতে তোমার জীবন-দেীপ নিৰ্ব্বাণ হইবে । তোমার পক্ষে দামস্ক রাজপুর, ইক্ষণ স্বাক্ষাং যমপুৰী। কি আশার সে দিকে দেড়িাছ সেমি