পাতা:বীথিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১৩৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


মরণ-মাতা মরণ-মাতা, এই যে কচি প্রাণ, বুকের এ যে তুলাল তব, তোমারি এ যে দান । ধূলায় যবে নয়ন আঁধা, জড়ের স্তুপে বিপুল বাধা, তখন দেখি তোমারি কোলে নবীন শোভমান । নবদিনের জাগরণের ধন, গোপনে তা’রে লালন করে তিমির আবরণ । পর্দা-ঢাকা তোমার রথে বহিয়া আনো প্রকাশ-পথে নূতন আশা, নূতন ভামা, নূতন আয়োজন ॥ চ’লে যে যায় চাহে না আর পিছু, তোমারি হাতে সঁপিয়া যায় যা-ছিল তার কিছু । তাহাই ল’য়ে মন্ত্র পড়ি’ নুতন যুগ তোলে যে গড়ি’ নূতন ভালোমন্দ কত, নৃতন উ চুনিচু ॥ ১২ :