পাতা:বীথিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১৫৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বীথিকা ঈর্ষ্যা-বিদ্বেষের বহ্নি দিল মাতৃমন ছেয়ে,-— “ঐ টুকু মেয়ে আমার সোনার ছেলে পর করে, আগুন লাগিয়ে দেয় কচি হাতে এ প্রাচীন ঘরে ! অপরাধ ! অনুকূল ওরে ভালোবাসে এই ঢের, সীমা নেই এ অপরাধের । যত তর্ক করে তুমি, যে যুক্তি দাও না ইহার পাওনা ওই মেয়েটাকে হবে মেটাতে সত্বর । আমারি এ ঘর, আমারি এ ধনজন, আমারি শাসন, আর কারো নয় আজই আমি দেব তার পরিচয় ॥” প্রমিত যাবার বেলা ঘরে দিয়ে দ্বার খুলে দিল সব অলঙ্কার । পরিল মিলের শাড়ি মোটা-সূতা-বোন । ృరిa >b"