পাতা:বীথিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৩৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বাথিক বাতাস লাগিল পালে ; ভাটার বেলায় তরী যবে যায় থেমে, অচেনা পুলিনে কবে গিয়েছিলে নেমে, মলিন ছায়ার ধূসর গোধূলিকালে । আবার রচিলে নব কুহকের পালা, সাজালে ডালিতে নুতন বরণমালা, নয়নে আনিলে নুতন চেনার হাসি । কোন সাগরের তাধার জোয়ার লেগে আবার নদীর নাড়া নেচে ওঠে বেগে, আবার চলিনু ভাসি ॥ তুমি ভেসে চলে সাথে । চিররাপখানি নবরূপে আসে প্রাণে ; নানা পরশের মাধুরার মাঝখানে (.তামারি সে হাত মিলেছে আমার হাতে । গোপন গভীর রহস্ত্যে অবিরত ঋতুতে ঋতুতে স্তরের ফসল কত i. ٹیپ (* ফলায়ে তুলেছ বিস্মিত (মার গীতে ।