পাতা:বীথিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৪৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বাথিক চুম্বিল ধরাতল যে আলোক, স্বগের সে বালক কানে তা’র ব’লে গেছে যে কথাটি তারি স্মৃতি তাজে ধরণীর মাটি দিকে দিকে বিকশিছে ঘাসে ঘাসে, তারি পানে চেয়ে চেয়ে সেই স্তর কানে আসে । প্রাণের প্রথমতম কম্পন তাশথের মজ্জায় করিতেছে বিচরণ, তারি সেই বাঙ্কার ধ্বনিহান— তাকাশের বক্ষেতে কেঁপে ওঠে নিশিদিন ; মোর শিরাতন্তুতে বাজে তাই ; গেভার চেতনার মাঝে তাই নন্তন জেগে ওঠে অদৃশ্য ভঙ্গীতে অরণ্য-মৰ্ম্মর-সঙ্গীতে । o న