পাতা:বুয়র ইতিহাস - প্রিয়নাথ মুখোপাধ্যায়.pdf/৬১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

দশম পরিচ্ছেদ।

৫৭

(Sunday) নদীর মধ্যবর্তী স্থানের ১৭ জন বুয়র ও ১৩ জন হটেণ্টট্‌কে নিহত করিয়া, তাঁহাদিগের যথাসর্ব্বস্ব অপহরণ করিয়া লইয়া যায়।

 এই ঘটনার পর, লেম্বিকে শাস্তি প্রদান করিবার মানসে, কৃষিজীবী বুয়রগণ একত্র সমবেত হন; কিন্তু গ্রেহেম টাউনে (Graham Town) উপনীত হইবার পূর্ব্বেই, ৯।১০ সহস্র সাহসী যোদ্ধার সহিত, লেম্বির প্রধান সর্দ্দার মাকেনা (Makana) হঠাৎ সেইস্থানে আসিয়া উপস্থিত হন। সেই সময়, সেইস্থানে ইংরাজদিগের কেবল ৩৩৩ জন মাত্র দুর্গরক্ষক সৈন্য ছিল। তাহারা প্রাণপণে কোষাগণের সহিত যুদ্ধ করিলেন। ইংরাজগণ নিতান্ত অল্পসংখ্যক হইলেও, সেই অধিক সংখ্যক কোষাগণ, তাঁহাদিগের গোলাগুলির সম্মুখে দাঁড়াইতে পারিল। যখন দেখিল, তাহাদিগের বিস্তার লোক ধরাশায়ী হইতেছে, তখন তাহারা পলায়ন করিল।

 এই ঘটনায় তিন মাস পরে, ইংরাজগণ বিস্তর সৈন্য সামন্ত লইয়া, লেম্বিকে উপযুক্তরূপ শাস্তি প্রদান করিবার নিমিত্ত, মৎস্য নদী পার হইলেন। ইহাতে, লেম্বির বিস্তর লোক ইংরাজগণ কর্ত্তৃক হত, তাহাদিগের বাসস্থান সকল ভস্মে পরিণত ও বিস্তর পশু ইংরাজদিগের হস্তগত হইল। উহাদিগের মধ্যে যাহারা অবশিষ্ট রহিল, তাহারা সেই প্রদেশ পরিত্যাগ করিয়া, কাই (Kei) নদীর পূর্ব্ব পার্শ্বে গিয়া আশ্রয় লইল। এই সময় সর্দ্দার মাকেনা ধৃত হওয়ায়, তাঁহাকে রবিণ দ্বীপে (Robbin Island) আবদ্ধ করিয়া রাখা হয়। কিন্তু তিন বৎসর পরে, সেই স্থান হইতে পলায়ন করিতে গিয়া, তিনি