প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:বৌ-ঠাকুরাণীর হাট-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/৫০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


? a বৌ-ঠাকুবাণীব হাট যুবরাজ উদয়াদিত্য আসিয। গভীব স্নেহপূর্ণ প্রশান্ত আনন্দেব সহিত বিভব দলজ্জ হর্ষপূৰ্ণ মুখখানি দেখিলেন। বিভাব হর্ষ দেখিয়া তাহাব এমনি আনন্দ হইল যে, গৃহে গিয সস্নেহ, মৃদু হাস্তে স্থবমাকে বিলেন । স্নবম জিজ্ঞাসা বলিল, “কণী ?” 婦 উদযাদিত্য কহিলেন,—“কিছুই না ’ এমন সমধে বসস্তুবাখ জোব কবিয বিভাকে টানিয! ধবেব মধ্যে আনিষ হাজিব কবিলেন। চিবুক ববিয তাহাব মুখ তুলিযা ধবিষ কহিলেন—“দেখে, দাদ, আজ এক বাব তোমাদেব বিভাব মুখখানি দেখে স্ববম–ও স্ববম, একবাব দেখে যাও। আনন্সে গদগদ झझेग्न বৃদ্ধ হাসিতে লাগিলেন। বিভাব মুখেৰ দিকে চাহিয়া কহিলেন,”আহলাদ হষ তে ভাল কবেই হাস ন৷ ভাহ, দেখি । “হাসিবে পাষে ধবে বখিবি কেমন কবে৮ হাসিব সে প্রাণেব সাধ ঐ অধবে গেল। কবে ।” f; বয়স যদি না যাইত ত আজ তোব ঐ মুখখানি দেখিযা এই খা.ে পডিতাম আব মবিতাম । হায, হামৈবাৰ বয়স গিয়াছে। যৌবনকালে ঘড়ি ঘডি মবিতাম। বুড বয়সে বেগ ন হইলে আব মবণ হয় না ’ । প্রতাপাদিত্যকে যখন র্তাহাব শুলক আসিযা জিজ্ঞাসা কবিলে “জামাই বাবাজিক অভ্যর্থনা কবিবাব জন্য কে গিযাছে ?” তি কহিলেন “আমি কী জানি ।” “আজ পথে অবস্থ আলোতে হইবে ন্ত্রে বিক্ষাবিত কবিয়া মহাবীজ কহিল্বে “उैgई দিতেইইষ্ণের কোয়ে কথা নাই।” জুন বাজালকসসঙ্কোচে কহিল্বে ৰংবং গলি না কি "সেসবল ভাবিৰ মকৰ নাই ।” জয়ল কাঞ্চল बावारैश এন্ধুটা জামাই ঘবে আনা প্রতাপাদিত্যেব কাৰ্য্য নৰে। স্বামচন্দ্র রায়েব মহা অভিমান উপস্থিত হইয়াছে ।