পাতা:মীরকাসিম - অক্ষয়কুমার মৈত্রেয়.pdf/১৬১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অষ্টাদশ পরিচ্ছেদ >ぐ> সময়েই ইংরাজ সেনা যুদ্ধাৰ্থ অগ্রসর হইতে বাধ্য হইল। তাহারা অজয়তীরে উপনীত হইয়া সহসা বাধা প্ৰাপ্ত হইল । জাফর খাঁ, আলম খাঁ ও সেখ। হায়তুল্যার সেনাদল ইংরাজসেনার গতিরোধ করিবার জন্য বীরগর্বে দণ্ডায়মান হইল। মহম্মদ তকি খাঁ স্বয়ং উপস্থিত না থাকিলেও, নবাবসেনা অকুতোভয়ে ইংরাজ-সেনার উপর আপতিত হইল। ইংরাজ সেনানায়ক লেপ্টেনাণ্ট গ্লেন অসংখ্য নবাব-সেনা কর্তৃক এইরূপে আক্রান্ত হইয়া, গোলন্দাজ ও সিপাহীদিগের সাহসেই আত্মরক্ষার আয়োজন করিতে লাগিলেন । নবাব-সেনার সহিত কামান ছিল না ; ইংরাজ-সোনার কামান মুহুমুহু: অনল বর্ষণ করিয়া নবাব-সেনাকে ব্যতিব্যস্ত করিয়া তুলিল। তথাপি চারি ঘণ্টা পৰ্য্যন্ত নবাব-সেনা অতুল বিক্ৰমে বহু সংখ্যক ইংরাজের নিধন সাধন করিয়া, যুদ্ধ-ভূমি পরিত্যাগ করিতে বাধ্য হইল। SLD DBD DDB BDBBD DBDK uBuBB SDDD DBDBBB DKBDDBY ও সার্জেণ্টদিগের মধ্যে অধিকাংশই প্ৰাণত্যাগ করায়, ইংরাজশিবিরে, হাহাকার উখিত হইল । নবাব-সেনা তিন বার ইংরাজের কামান কাড়িয়া লইয়াছিল ; তিনবারই ইংরাজের বেতনভূক সিপাহী সেনা কামানগুলির উদ্ধার সাধন করিয়া ইংরাজের লজ্জা রক্ষা করিয়াছিল। এই যুদ্ধে গ্লেন দেখিলেন-ভারতবর্ষের লোকেই ভারতবর্ষের লোকের পরাজয় সাধন করিল ; সিপাহী না থাকিলে, ইংরাজের পক্ষে কেবল গোরা পল্টন লইয়া সদলে বিনষ্ট হইতে হইত ! ইংরাজ-সেনাপতি জয়লাভ করিয়াও যুদ্ধক্ষেত্রে শিবির সংস্থাপন করিতে পারিলেন না ; মেজর আদামসের সেনাদলের সহিত মিলিত হইবার আশায় সম্মুখে অগ্রসর হইতে লাগিলেন। কাটোয়ার দুর্গে অতি অল্পসংখ্যক সিপাহী বর্তমান ছিল ; তাহারা ইংরাজ-সোনার গতিরোধ করিতে পারিল না। গ্লেন সায়ংকালে দুর্গমধ্যে প্রবেশ করিয়া রসদাদি হস্তগত করিলেন। তিকি খাঁর সেনানায়কগণ ঈর্ষাপরায়ণ হইয়া দূরে