পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অষ্টম খণ্ড) - সুলভ বিশ্বভারতী.pdf/১৪৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পরিশেষ জানি তাই, সে আমি তো বন্দী নহে আমার সীমায়, পুরাণে বীরের মহিমায় আপন হারায়ে তারে পাই আপনাতে দেশকাল নিমেষে পারায়ে । যে আমি ছায়ার আবরণে লুপ্ত হয়ে থাকে মোর কোণে সাধকের ইতিহাসে তারি জ্যোতির্ময় পাই পরিচয় । যুগে যুগে কবির বাণীতে সেই আমি আপনারে পেরেছে জানিতে । দিগন্তে বাদলবায়ুবেগে নীল মেঘে বর্ষা আসে নাবি ৷ বসে বসে ভাবি এই আমি যুগে যুগান্তরে কত মূর্তি ধরে, কত নামে কত জন্ম কত মৃত্যু করে পারাপার কত বারংবার | ভূত ভবিষ্যৎ লয়ে যে বিরাট অখণ্ড বিরাজে GP NoNK-AT(k. নিভৃতে দেখিব আজি এ আমিরে, সর্বত্রগামীরে । তুমি সূৰ্য যখন উড়ালো কেতন তুমি আমি তার রথের চাকার ধ্বনি পেয়েছিনু জানতে । সেই ধ্বনি ধায় বকুলশা প্রভাতবায়ুর ব্যাকুল পাখায়, সুপ্ত কুলায়ে জাগায়ে সে যায় আকাশপথের পাস্থে । অরুণরথের সে ধবনি পথের মন্ত্র শুনায়ে দিলে তাই পায়ে-পায় দোহার চলায় । ছন্দ গিয়েছে মিলে । S Ràd