পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অষ্টম খণ্ড) - সুলভ বিশ্বভারতী.pdf/১৫১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


sfer নিন্দার কণ্টকমাল্যে বক্ষ বিধিয়াছে বারে বারে, বরমাল্য জানিয়াছি তারে । আলোকিত ভুবনের মুখপানে চেয়ে নিনিমেষ বিস্ময়ের পাই নাই শেষ । যে লক্ষ্মী আছেন নিত্য মাধুরীর পদ্ম-উপবনে, পেয়েছি তাহার সম্পর্শ সর্ব অঙ্গে-মনে । তারে আমি ধরেছি। বঁশিতে । র্যাহারা মানুষরূপে দৈববাণী অনির্বচনীয় তাহাদের জেনেছি আত্মীয় । তবু কণ্ঠে ধবনিয়াছে অসীমের জয় । অসম্পূৰ্ণ সাধনায় ক্ষণে ক্ষণে ক্ৰন্দিত আত্মার খুলে গেছে অবরুদ্ধ দ্বার । kong ang GNoisy varias | যেথা যে অমৃতধারা উৎসারিল যুগে যুগান্তরে জ্ঞানে কমে ভাবে, জানি সে আমারই তারে । পুর্ণের যে-কোনো ছবি মোর প্রাণে উঠেছে উজ্জ্বলি জানি তাহা সকলের বলি । ধুলির আসনে বসি ভূমারে দেখেছি। ধ্যানচোখে আলোকের অতীত আলোকে । অণু হতে অণীয়ান মহৎ হইতে মহীয়ান, ইন্দ্ৰিয়ের পারে তার পেয়েছি। সন্ধান । ক্ষণে ক্ষণে দেখিয়াছি দেহের ভেদিয়া যবনিকা অনির্বাণী দীপ্তিময়ী শিখা । যেখানেই যে তপস্বী করেছে দুষ্কর যজ্ঞ যাগ, আমি তার লভিয়াছি ভাগ । মোহবন্ধ মুক্ত যিনি আপনারে করেছেন জয়, তার মাঝে পেয়েছি আমার পরিচয় । যেখানে নিঃশঙ্ক বীর মৃত্যুরে লঙিঘল অনায়াসে, স্থান মোর সেই ইতিহাসে । শ্রেষ্ঠ হতে শ্রেষ্ঠ যিনি, যতবার ভুলি কেন নাম, তবু তারে করেছি। প্ৰণাম । S v96