পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অষ্টম খণ্ড) - সুলভ বিশ্বভারতী.pdf/১৬১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অমাবা-মারু ; বঙ্গসাগর ২৬ অক্টোরির ১৯২৭ পরিশেষ ভাষাহীন দিন কুয়াশাবিলীনমলিন উষার স্বর্ণ কল্পনা যত বাদুড়ের মতো রাতে ওড়ে কালো বৰ্ণ ; আবর্জনার অচলপুঞ্জে যাত্রার পথ রুদ্ধ, রিক্তকুসুম শুষ্ক কুঞ্জে বৈশাখ রহে ক্রুদ্ধ— মন মোরে কয়, “এ কিছুই নয়, মিথ্যে, এ-সর মিথ্যে, আপনায় ভুলে গাও প্ৰাণ খুলে, নাচো নিখিলের নৃত্যে ।” নিবেছে ঘরের দীপ্তি, চির-উপবাসী আপনার মাঝে আপনি না পাই তৃপ্তি, পদে পদে রায় সংশয় ভয়, পদে পদে প্ৰেম ক্ষুন্ন, বৃথা আহবান, বৃথা অনুনয়, সখার আসন শূন্যমন বলি উঠে, "ডুবে যা গভীরে, মিথ্যে, এ-সব মিথ্যে, নিবিড় ধোঁয়ানে নিখিল লভি রে আপনারি একাকিত্বে ।” ୬ ভগবান, তুমি যুগে যুগে দৃত, পাঠায়েছ বারে বারে দয়াহীন সংসারে, তারা বলে গেল “ক্ষমা করো সবে’, বলে গেল। ‘ভালোবাসো অন্তর হতে বিদ্বেষবিষ নাশো” । বরণীয় তারা, স্মরণীয় তারা, তবুও বাহির-দ্বারে আজি দুদিনে ফিরানু তাদের ব্যর্থনমস্কারে । আমি-যে দেখেছি গোপন হিংসা কপট রাত্ৰিছায়ে হেনেছে নিঃসহায়ে, আমি-যে দেখেছি প্ৰতিকারহীন শক্তের অপরাধে বিচারের বাণী নীরবে নিভৃতে কঁাদে । S 8G