পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অষ্টম খণ্ড) - সুলভ বিশ্বভারতী.pdf/১৬৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পরিশেষ S 8S নৈরাশ্যের কুহেলিকা ক্ষণে ক্ষণে মুছে দিতে চায়, বাধার পশ্চাতে কবি দেখে চিরন্তন-রবি সেই দেখা শিশুচক্ষে ভায় । শিশুর সম্পদ বয়ে এসেছ এ লোকালয়ে, সে সম্পদ থাক আমলিনা । যে বিশ্বাস দ্বিধাহীন তারই সুরে চিরদিন বাজে যেন জীবনের বীণা ৷ प्रार्डिनिश् ৮। কার্তিক ১৩৩৮ অবুঝ মন অবুঝ শিশুর আবছায়া এই নয়ন-বাতায়নের ধারে আপনাভোলা মনখানি তার অধীর হয়ে উকি মারে । বিনাভাষার ভাবনা নিয়ে কেমন আঁকুবাকুর খেলাহঠাৎ ধরা, হঠাৎ ছড়িয়ে ফেলা, হঠাৎ অকারণ কী উৎসাহে বাহু নেড়ে উদ্দাম গর্জন । হঠাৎ দুলে দুলে ওঠে, অর্থবিহীন কোন দিকে তার লক্ষ ছোটে । বাহির-ভুবন হতে আলোর লীলায় ধবনির স্রোতে যে বাণী তার আসে প্ৰাণে তারি জবাব দিতে গিয়ে কী-যে জানায় কেই তা জানে । এই-যে অবুঝ এই-যে বোবা মন প্ৰাণের পরে ঢেউ জাগিয়ে কৌতুকে যে অধীর অনুক্ষণ, সর্বদিকেই সর্বদা উন্মুখ, আপনারই চাঞ্চল্য নিয়ে আপনি সমুৎসুক— নয় বিধাতার নবীন রচনা এ, ইহার যাত্ৰা আদিম যুগের নায়ে । প্ৰাণের সঙ্গে বাহির হল, তখন অন্ধকার, নিয়ে এল ক্ষীণ আলোটি তার । তারই প্ৰথম ভাষাবিহীন কুজনকাকলি যে বনে বনে শাখায় পাতায় পুষ্পে ফলে বীজে