পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অষ্টম খণ্ড) - সুলভ বিশ্বভারতী.pdf/২৩৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


SRSRO [ Pन >७७8 ] রবীন্দ্ৰ-রচনাবলী জীবনমরণ জীবনমরণের বাজায়ে খণ্ডজনি নাচিয়া ফায়ুন গাঁহিছে। অধীরা হল ধরা মাটির বন্দিনী বাতাসে উড়ে যেতে চাহিছে । আজিকে আলো ছায়া করিছে কোলাকুলি, আজিকে এক দোলে দুজনে দোলাদুলি শুকানো পাতা আর মুকুলে । । আজিকে শিরীষের মুখর উপবনে জড়িত পাশাপাশি নুতনে পুরাতনে চিকন শ্যামলের দুকুলে । বিরহে টানে মিড় মিলন-বীণাতারে, সুখের বুকে বাজে বেদন । কপোত-কাকলিতে করুণা সঞ্চারে, কাননদেবী হল বিমনা । আমারো প্ৰাণে বুঝি বহেছে। ওই হাওয়া, কিছু বা কাছে আসা, কিছু বা চলে যাওয়া, কিছু বা স্মরি কিছু পাসরি । যে আছে যে—বা নাই আজিকে দোহে মিলি उठात्राद्ध एड्छादन्माCङ उचCिछ निद्वेिदिविन বাজায়ে ফাগুনের বঁাশরি । গৃহলক্ষ্মী নবজাগরণ-লিগনে গগনে বাজে কল্যাণশত্বএসো তুমি উষা, ওগো অকলুষিা, আনো দিন নিঃশঙ্ক । , দুৰ্য্যলোকভাসানো আলোক সুধায় অভিষেক তুমি করো বসুধায়, নবীন দৃষ্টি নয়নে তাহার এনে দাও অকলঙ্ক । সম্মুখ-পানে নবযুগ আজি মেলুক উদার চিত্র । অমৃতলোকের দ্বার খুলে দিন চিরজীবনের মিত্ৰ । বিশ্বের পথে আসিয়াছে ডাক, যাত্রীরা সবে যাক ধেয়ে যাক, দেহমান হতে হােক অপগত অবসাদ অপবিত্ৰ ।