পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অষ্টম খণ্ড) - সুলভ বিশ্বভারতী.pdf/৩৬৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Vor রবীন্দ্ৰ-রচনাবলী ঋতুরাজ এ মোর পথের বাঁশির সুরে সুরে লুকিয়ে কঁদে হাসে । বনপথ ওরে দেখ বা নাই দেখ, ওরে যাও বানা-যাও ভুলে । ওরে নাই-বা দিলে দোলা, ওরে নাই-বা নিলে তুলে । সভায় তোমার ও কেহ নয়, ওর সাথে নেই ঘরের প্রণয়, যাওয়া-আসার আভাস নিয়ে রয়েছে একপাশে । ঋতুরাজ ওগো ওর সাথে মোর প্রাণের কথা নিশ্বাসে নিশ্বাসে । রাজা । খুব জমেছে, কবি । সুরের দোলায় চাদকে দুলিয়েছ। ঐ দেখো-না, আমার অর্থসচিবসুদ্ধ দুলছে । কবি । এবার সময় হয়েছে । রাজা । কিসের সময় । কবি । ঋতুরাজের যাবার সময় । রাজা । আমাদের অর্থসচিবকে চোখে পড়েছে নাকি । কবি । বলেইছি তো, পূর্ণ থেকে রিক্ত, রিক্ত থেকে পূর্ণ, এরই মধ্যে ওঁর আনাগোনা। বাধন পরা, বঁাধন খোলা, এও যেমন এক খেলা, ওও তেমনি এক খেলা । । রাজা । আমি কিন্তু ঐ পূর্ণ হওয়ার খেলাটাই পছন্দ করি। কবি । যথার্থ পূর্ণ হয়ে উঠলে রিক্ত হওয়ার খেলায় ভয় থাকে না। রাজা । বোধ হচ্ছে যেন এখনই উপদেশ দিতে শুরু করবে । কবি । আচ্ছ তা হলে আবার গান শুরু হােক । ঋতুরাজ এখন আমার সময় হল, যাবার দুয়ার খোলো খোলো । হল দেখা, হল মেলা, আলোছায়ায় হল খেলা, o-GG (9 e আকাশ ভরে দূরের গানে, অলেখ দেশে হৃদয় টানে ।