পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অষ্টম খণ্ড) - সুলভ বিশ্বভারতী.pdf/৩৮৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


VVr রবীন্দ্র রচনাবলী গোসাই । এই এদের কথা বলছ ? আহা, এরা তো স্বয়ং কুৰ্ম-অবতার। বোঝার নীচে নিজেকে চাপা দিয়েছে বলেই সংসারটা টিকে আছে। ভাবলে শরীর পুলকিত হয় । বাবা ৪৭ফ, একবার ঠাউরে দেখো, যে মুখে নাম কীর্তন করি সেই মুখে অন্ন জোগাঁও তোমরা ; শরীর পবিত্র হল যে নামাবলিখানা গায়ে দিয়ে, মাথার ঘাম পায়ে ফেলে সেখানা বানিয়েছ তোমরাই । এ কি কম কথা ! আশীৰ্বাদ করি, সর্বদাই অবিচলিত থাকে, তা হলেই ঠাকুরের দয়াও তোমাদের পরে অবিচলিত থাকবে । বাবা, একবার কণ্ঠ খুলে বলে “হারি হরি’ । তোমাদের সব বোঝা হালকা হয়ে যাক । হরিনাম আন্দাবস্তে চ মধ্যে চ | চন্দ্ৰা । আহা, কী মধুর । বাবা, অনেকদিন এমন কথা শুনি নি। দাও দাও, আমাকে একটু পায়ের ধুলো TN3 ফাগুলাল । এতক্ষণ অবিচলিত ছিলুম, কিন্তু আর তো পারি নে। সর্দার, এত বড়ো অপব্যয় কিসের জন্যে । প্ৰণামী আদায় করতে চাও রাজি আছি, কিন্তু ভণ্ডামি সাইন না । বিশু । ফাগুলাল খেপিলে আর রক্ষে নেই, চুপ চুপ।। চন্দ্ৰা । ইহকাল পরকাল তুমি দুই খোওয়াতে বসেছ ? তোমার গতি হবে কী । এমন মতি তোমার আগে ছিল না, আমি বেশ দেখতে পাচ্ছি, তোমাদের উপরে ঐ নন্দিনীর হাওয়া লেগেছে। গোসাই । যাই বল সর্দার, কী সরলতা ! পেটে মুখে এক, এদের আমরা শেখাব কি, এরাই আমাদের শিক্ষা দেবে । বুঝেছ ? সর্দার । বুঝেছি বৈকি। এও বুঝেছি। উৎপাত বেধেছে। কোথা থেকে । এদের ভার আমাকেই নিতে হচ্ছে। প্ৰভুপাদ বরঞ্চ ও পাড়ায় নাম শুনিয়ে আসুন, সেখানে করাতীরা যেন একটু খিটখিটি শুরু করছে। গোসাই । কোন পাড়া বললে, সর্দারবাবা । সর্দার। ঐ-যে ট-ঠ পাড়ায় । সেখানে ৭১ট হচ্ছে মোড়ল । মূর্ধন্য-ণয়ের ৬৫ যেখানে থাকে তার বায়ে ঐ পাড়ার শেষ । গোসাঁই। বাবা, দস্ত্য-ন পাড়া যদিও এখনো নড়নড় করছে, মূর্ধন্য-ণরা ইদানীং অনেকটা মধুর রসে মাজেছে । মন্ত্র নেবার মতো কান তৈরি হল বলে ; তবু আরো কটা মাস পাড়ায় ফৌজ রাখা ভালো । কেননা, নাহংকারাৎ পরো রিপুঃ । ফৌজের চাপে অহংকারটার দমন হয়, তার পরে আমাদের পালা। তবে আসি । চন্দ্ৰা । প্ৰভু, আশীর্বাদ করো, এই এদের যেন সুমতি হয়। অপরাধ নিয়ো না । গোসাঁই । ভয় নেই মা-লক্ষ্মী, এরা সম্পূর্ণ ঠাণ্ডা হয়ে যাবে। প্ৰস্থান সর্দার । ওহে ৬৯ঙ, তোমাদের ওপাড়ার মেজাজটা যেন কেমন দেখছি। ! বিশু । তা হতে পারে । গোসাইজি এদের কুৰ্ম-অবতার বললেন, কিন্তু শাস্ত্ৰমতে অবতারের বদল হয় । কুর্ম হঠাৎ বরাহ হয়ে ওঠে, বর্মের বদলে বেরিয়ে পড়ে দন্ত, ধৈর্যের বদলে গো । চন্দ্ৰা । বিশুবেয়াই, একটু থামো । সর্দারদাদা, আমার দরবারটা ভুলো না । সর্দার । কিছুতেই না । শুনে রাখলুম, মনেও রাখব। চন্দ্ৰা । আহা, দেখলে ? সর্দার লোকটি কী সরেস ! সবার সঙ্গেই হেসে কথা । বিশু । মকরের দাতের শুরুতে হাসি, অন্তিমে কামড় । চন্দ্ৰা । কামড়টা এর মধ্যে কোথায় ? ? বিশু । জান না, ওরা ঠিক করেছে এবার থেকে এখানে কারিগরের সঙ্গে তাদের স্ত্রীরা আসতে পারবে a 2 ܐ ܕܗ) | [ܗ݇ܝ̈b বিশু । সংখ্যারূপে ওদের হিসাবের খাতায় আমরা জায়গা পাই, কিন্তু সংখ্যার অঙ্কের সঙ্গে নারীর অঙ্ক গণিতশাস্ত্রের যোগে মেলে না ।