পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অষ্টম খণ্ড) - সুলভ বিশ্বভারতী.pdf/৪২৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চিরকুমার-সভা 8O2 অক্ষয় । সে কিছু শক্ত নয়। কিন্তু ব্যাপটাইজ আজই তো হবেন ? দারুকেশ্বর । (হাসিতে হাসিতে) সেটা কিরকম । অক্ষয় । (কিঞ্চিৎ বিস্ময়ের ভাবে) কেন, কথাই তো আছে, রেভারেন্দ্ৰ বিশ্বাস আজ রাত্রেই আসছেন। ব্যাপটিজম না হলে তো ক্রিশচান মতে বিবাহ হতে পারে না। মৃত্যুঞ্জয় । (অত্যন্ত ভীত হইয়া) ক্রিশচান মতে কী মশায় । অক্ষয় । আপনি যে আকাশ থেকে পড়লেন । সে হচ্ছে না- ব্যাপটাইজ যেমন করে হােক, আজ রাত্রেই সারতে হচ্ছে । কিছুতেই ছাড়ব না। মৃত্যুঞ্জয় । আপনারা ক্রিশচান নাকি । অক্ষয় । মশায়, ন্যাকামি রাখুন। যেন কিছুই জানেন না । মৃত্যুঞ্জয় । (অত্যন্ত ভীতভাবে) মশায়, আমরা হিন্দু, ব্ৰাহ্মণের ছেলে, জাত খোয়াতে পারব না । অক্ষয় । (হঠাৎ অত্যন্ত উদ্ধতস্বরে) জাত কিসের মশায় । এ দিকে কলিমন্দির হাতে মুগি খাবেন, বিলেত যাবেন, আবার জাত ? মৃত্যুঞ্জয় । (ব্যস্তসমস্ত হইয়া) চুপ, চুপ, চুপ করুন। কে কোথা থেকে শুনতে পাবে। দারুকেশ্বর । ব্যস্ত হবেন না মশায়, একটু পরামর্শ করে দেখি । (মৃত্যুঞ্জয়কে একটু অন্তরালে ডাকিয়া লইয়া) বিলেত থেকে ফিরে সেই তো একবার প্রায়শ্চিত্ত করতেই হবে- তখন ডবল প্ৰায়শ্চিত্ত করে একেবারে ধর্মে ওঠা যাবে। এ সুযোগটা ছাড়লে আর বিলেত যাওয়াটা ঘটে উঠবে না । দেখলি তো কোনো শ্বশুরই রাজি হল না । আর ভাই, ক্রিশচনের ইকোয় তামাকই যখন খেলুম। তখন ক্রিশচান হতে আর বাকি কী রইল । (অক্ষয়ের কাছে আসিয়া) বিলেত যাওয়াটা তো নিশ্চয় পাকা ? তা হলে ক্রিশচীন হতে রাজি আছি । মৃত্যুঞ্জয় । কিন্তু আজ রাতটা থাক । দারুকেশ্বর । হতে হয় তো চাটুপটু সেরে ফেলে পাড়ি দেওয়াই ভালো ; গোড়াতেই বলেছি, শুভস্য শীঘ্ৰং । ইতিমধ্যে অন্তরালে রমণীগণের সমাগম দুই-থালা ফল মিষ্টান্ন লুচি ও বরফ-জল লইয়া ভূত্যের প্রবেশ দারুকেশ্বর । কই মশায়, অভাগার অদৃষ্ট মুর্গি বেটা উড়েই গেল না কি। কট্রলেট কোথায় । অক্ষয় । (মৃদুস্বরে) আজকের মতো এইটেই চলুক । দারুকেশ্বর । সে কি হয় মশায় । আশা দিয়ে নৈরাশ ? শ্বশুরবাড়ি এসে মাটনচপ খেতে পাব না ? আর, এ-যে বরফ-জল মশায়, আমার আবার সন্দির ধাত, সাদা জল সহ্য হয় না। (গান জুড়িয়া) অভয় দাও তো বলি আমার wish কী অক্ষয় । (মৃত্যুঞ্জয়কে টিপিয়া) ধরো-না হে, তুমিও ধরে-না-চুপচাপ কেন । (গানের উচ্ছাস থামিলে আহার-পাত্র দেখাইয়া) নিতান্তই কি এটা চলবে না । দারুকেশ্বর । (ব্যস্ত হইয়া) না মশায়, ও-সব রোগীর পথ্যি চলবে না । মুগি না খেয়েই তো ভারতবর্ষ न | অক্ষয় । (কানের কাছে আসিয়া) গান কত কাল রবে বলে ভারত রে শুধু ডাল ভাত জল পথ্য করে । দারুকেশ্বর উৎসাহ-সহকারে গানটা ধরিল এবং মৃত্যুঞ্জয়ও অক্ষয়ের গোপন ঠেলা খাইয়া সলজভাবে মৃদু মৃদু যোগ দিতে লাগিল