পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অষ্টম খণ্ড) - সুলভ বিশ্বভারতী.pdf/৪৩৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


8SO রবীন্দ্ৰ-রচনাবলী র্যাদের শ্রদ্ধামাত্র নেই, তারা যত শীঘ্র এ সভা পরিত্যাগ করে সস্তানপালনে প্ৰবৃত্ত হন ততই আমাদের মঙ্গল । বিপিন ।। (আরক্তবর্ণ হইয়া) নিজের সম্বন্ধে কিছু বলতে চাই নে, কিন্তু এ সভায় এমন কেউ কেউ আছেন র্যারা সন্ন্যাসগ্রহণের কঠোরতা এবং সন্তানপালনের ত্যাগাস্বীকার দুয়েরই অযোগ্য, তাদেরচন্দ্ৰবাবু । (চোখের কাছ হইতে কাৰ্যবিবরণের খাতা নামাইয়া) উত্থাপিত প্ৰস্তাব সম্বন্ধে পূর্ণবাবুর পূর্ণ। অদ্য বিশেষরূপে সভার ঐক্য-বিধানের জন্য একটা কাজ অবলম্বন করবার প্রস্তাব করা হয়েছে। কিন্তু কাজের প্রস্তাবে ঐক্যের লক্ষণ কিরকম পরিস্ফুট হয়ে উঠেছে সে আর কাউকে চােখে আঙুল দিয়ে দেখাবার দরকার নেই। ইতিমধ্যে আমি যদি আবার একটা তৃতীয় মত প্ৰকাশ করে বসি তা হলে বিরোধানলে তৃতীয় আহুতি দান করা হবে- অতএব আমার প্রস্তাব এই যে, সভাপতিমশায় আমাদের কাজ নির্দেশ করে দেবেন এবং আমরা তাই শিরোধাৰ্য করে নিয়ে বিনা বিচারে পালন করে যাব, কাৰ্যসাধন এবং ঐক্যসাধনের এই একমাত্র উপায় আছে ! পাশের ঘরে এক ব্যক্তি আবার একবার নড়িয়া-চড়িয়া বসিল এবং তাহার চাবি ঝান করিয়া উঠিল চন্দ্ৰবাবু। আমাদের প্রথম কর্তব্য ভারতবর্ষের দারিদ্র্যামোচন, এবং তার আশু উপায় বাণিজ্য । আমরা কয়জনে বড়ো বাণিজ্য চালাতে পারি নে, কিন্তু তার সূত্রপাত করতে পারি। মনে করো আমরা সকলেই যদি দিয়াশলাই সম্বন্ধে পরীক্ষা আরম্ভ করি । এমন যদি একটা কাঠি বের করতে পারি যা সহজে জ্বলে, শীঘ্ৰ নেবে না এবং দেশের সর্বত্র প্রচুর পরিমাণে পাওয়া যায়, তা হলে দেশে সস্তা দেশলাই-নির্মাণের কোনো বাধা থাকে না । আমি বলছি শুধু ও জিনিসটা প্রস্তুত করার প্রণালী জানলেই তো হবে না । আমাদের দেশে যত রকম কাঠ মেলে তার মধ্যে কোন কাঠটা সব চেয়ে দাহ্য তার সন্ধান করা চাই । বিপিন । দাহনতত্ত্ব সম্বন্ধে পূর্ণবাবুর কিছু অভিজ্ঞতা আছে বলে মনে হয় । চন্দ্ৰবাবু। তাই নাকি । কী পূর্ণ, তুমি কি দাহ্য পদার্থের পরীক্ষা করেছ নাকি । পূর্ণ। আমার মনে হয় খ্যাংরা কাঠি জিনিসটা সস্তাও বটে। অথচবিপিন । ইয়া, অথচ ওটা সহজেই জ্বালা ধরিয়ে দেয়, কিন্তু কুমার-সভায় তার পরীক্ষা সহজ নয় । চন্দ্ৰবাবু। কী বলছেন বিপিনবাবু। কথাটা শুনতে পেলুম না। বিপিন । আমি বলছিলুম, আমাদের দেশে দাহ্য পদার্থ যথেষ্ট আছে, যাতে দাহন করে এমন জিনিসেরও অভাব নেই ; কিন্তু পরীক্ষাটা খুব বিবেচনাপূর্বক করা চাই । চন্দ্ৰবাবু। ঠিক কথা বলেছেন । অনেক কাঠ আছে, যেমন শীঘ্ৰ জ্বলে ওঠে তেমনি শীঘ্ৰ পুড়ে ছাই হয়ে या । বিপিন । আছে বৈকি । চন্দ্ৰবাবু। শীঘ্ৰ জুলবে, অল্প অল্প করে জ্বলবে, অনেকক্ষণ ধরে শেষ পর্যন্ত জ্বলবে, এমন জিনিসটি চাই। খুঁজলে পাওয়া যাবে না কি ? শ্ৰীশ । খুব পাওয়া যাবে, হয়তো দেখবেন হাতের কাছেই আছে। পূর্ণ। পাকাটি এবং খ্যাংরা কাঠি দিয়ে শীঘ্রই পরীক্ষা করে দেখব । শ্ৰীশ মুখ ফিরাইয়া হাসিল অক্ষয়ের প্রবেশ অক্ষয় । মশায়, প্ৰবেশ করতে পারি ? ক্ষীণদৃষ্টি চন্দ্ৰীমাধববাবু হঠাৎ চিনিতে না পারিয়া লু কুঞ্চিত করিয়া অবাক হইয়া চাহিয়া রহিলেন