পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অষ্টম খণ্ড) - সুলভ বিশ্বভারতী.pdf/৪৯৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চিরকুমার-সভা 8ԳԳ রসিক । সেইজন্যেই তো এত দিন অপেক্ষা করে শেষে এই বিপদ । বিবাহের প্রসঙ্গমাত্রই আপনাদের কাছে অপ্রিয়, তবু দেখুন। আপনাদের সুদ্ধ বিপিন । সেজন্যে কিছু সংকোচ করবেন নাশ্ৰেণ। আপনি যে আরকারে কাছেল গিয়ে আমাদের কাছে এসেছে, সেজনে অন্তরের সঙ্গে ধন্যবাদ রসিক । আমি আর আপনাদের ধন্যবাদ দেব না। সেই কন্যা দুটির চিরজীবনের ধন্যবাদ। আপনাদের পুরস্কৃত করবে। বিপিন। ওরে, পাখাটা টান। শ্ৰীশ । রসিকবাবুর জন্যে জলখাবার আনবে বলেছিলে বিপিন । সে এল বলে । ততক্ষণ এক গ্লাস বরফ-দেওয়া জল খান শ্ৰীশ । জল কেন, লেমনেড আনিয়ে দাও-না । (পকেট হইতে টিনের বাক্স বাহির করিয়া) এই নিন বিপিন । আচ্ছা, নীরবালা তার মাকে কেন একটু ভালো করে বুঝিয়ে বলেন নারসিক । (স্বগত) ঐ রে, শুরু হল । আমার লেমনেডে কাজ নেই। (প্রকাশ্যে) মাপ করবেন, আমায় কিন্তু এখনই উঠতে হচ্ছে। শ্ৰীশ । বলেন কী । বিপিন । সে কি হয় । রসিক । সেই ছেলেদুটােকে ভুল ঠিকানা দিয়ে আসতে হবে, নইলেশ্ৰীশ । বুঝেছি, তা হলে, এখনই যান। বিপিন । তা হলে আর দেরি করবেন না । তৃতীয় দৃশ্য চন্দ্ৰবাবুর বাড়ি নির্মলা বাতায়নতলে আসীন। চন্দ্রবাবুর প্রবেশ চন্দ্ৰবাবু। (স্বগত) বেচারা নির্মলা বড়ো কঠিন ব্ৰত গ্ৰহণ করেছে। আমি দেখছি। কদিন ধরে ও চিন্তায় নিমগ্ন হয়ে রয়েছে। স্ত্রীলোক, মনের উপর এতটা ভার কি সহ্য করতে পারবে। (প্রকাশ্যে) নির্মল । নির্মলা । (চমকিয়া) কী মামা । চন্দ্ৰবাবু। সেই লেখাটা নিয়ে বুঝি ভাবিছ ? আমার বোধ হয় অধিক না ভেবে মনকে দুই-একদিন বিশ্রাম দিলে লেখার পক্ষে সুবিধা হতে পারে। নির্মলা । (লজিত হইয়া) আমি ঠিক ভাবছিলুম না মামা । আমার এতক্ষণ সেই লেখায় হাত দেওয়া উচিত ছিল, কিন্তু এই কদিন থেকে গরম পড়ে দক্ষিনে হাওয়া দিতে আরম্ভ করেছে, কিছুতেই যেন বসাতে পারছি নে- ভারি অন্যায় হচ্ছে, আজ আমি যেমন করে হােক চন্দ্রবাবু। না না, জোর করে চেষ্টা কোরো না। আমার বোধ হয় নির্মল, বাড়িতে কেউ সঙ্গিনী নেই, নিতান্ত একলা কাজ করতে তোমার শ্ৰান্তি বোধ হয়। কাজে দুই-একজনের সঙ্গ এবং সহায়তা না হলে