পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অষ্টম খণ্ড) - সুলভ বিশ্বভারতী.pdf/৭৪১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গ্রন্থপরিচয় A NA বাদ পড়ে, যদিও রবীন্দ্রনাথের প্রথম গল্পসংগ্ৰহ “ছোট গল্প (১৫ ফায়ুন ১৩০০) বইটিতে উহা ইতিপূর্বেই মুদ্রিত হইয়াছিল। ১৯০৮-১৯০৯ খৃস্টাব্দে পােচ ভাগে প্রকাশিত ইন্ডিয়ান প্রেসের গল্পগুচ্ছেও উহা বর্জিত ছিল । বিশ্বভারতী সংস্করণ গল্পগুচ্ছের (শ্রাবণ ১৩৩৩) প্ৰথম খণ্ডে গল্পটি পুনরায় সন্নিবিষ্ট হয় । ১৩১৭ সালের ২৮ ভাদ্র তারিখে পদ্মিনীমোহন নিয়োগীকে একটি পত্রে** রবীন্দ্ৰনাথ লিখিয়াছেন: “সাধনা বাহির হইবার পূর্বেই হিতবাদী কাগজের জন্ম হয়।**“সেই পত্রে প্রতি সপ্তাহেই আমি ছোটাে গল্প, সমালোচনা ও সাহিত্যপ্ৰবন্ধ লিখিতাম। আমার ছোটাে গল্প লেখার সূত্রপাত ঐখানেই। ছয় সপ্তাহকাল লিখিয়াছিলাম।” বর্তমান খণ্ড রচনাবলীতে মুদ্রিত গল্প-ছয়টি হিতবাদীতে সম্ভবতঃ প্ৰথম ছয় সপ্তাহে বাহির হয় । পোস্টমাস্টার গল্পটি সম্পর্কে সাজাদপুর হইতে ২৯ জুন ১৮৯২ তারিখে লেখা একটি পত্ৰ “ছিন্নপত্র’ হইতে অংশতঃ উদধূত হইল : “কালকের চিঠিতে লিখেছিলুম আজ অপরাহু সাতটার সময় কবি কালিদাসের সঙ্গে একটা এনগেজমেন্ট করা যাবে । বাতিটি জ্বলিয়ে টেবিলের কাছে কেদারাটি টেনে বইখানি হাতে যখন বেশ প্ৰস্তুত হয়ে বসেছি হেনকালে কবি কালিদাসের পরিবর্তে এখানকার পোস্টমাস্টার এসে উপস্থিত । এই লোকটির সঙ্গে আমার একটু বিশেষ যোগ আছে। যখন আমাদের এই কুঠিবাড়ির একতলাতেই পোস্ট অফিস ছিল এবং আমি ঐকে প্রতিদিন দেখতে পেতুম তখনি আমি একদিন দুপুরবেলায় এই দোতলায় বসে সেই পোস্টমাস্টারের গল্পটি লিখেছিলুম এবং সে গল্পটি যখন হিতবাদীতে বেরোল, তখন আমাদের পোস্টমাস্টারবাবু তার উল্লেখ করে বিস্তর লজামিশ্রিত হাস্য বিস্তার করেছিলেন । যাই হােক, এই লোকটিকে আমার বেশ লাগে । বেশ নানা রকম গল্প করে যান, আমি চুপ করে বসে শুনি । ওরই মধ্যে ওঁর আবার বেশ-একটু হাস্যরসও আছে।” এই প্রসঙ্গে ছিন্নপত্রের সাজাদপুর হইতে লেখা ফেব্রুয়ারি ১৮৯১ তারিখের চিঠিটিও দ্রষ্টব্য । “গিন্নি গল্পের শিবনাথ পণ্ডিতের সহিত জীবনস্মৃতিতে বৰ্ণিত ‘নির্মাল স্কুল এর জনৈক শিক্ষকের “ক্রমশ নর্মাল স্কুলের স্মৃতিটা যেখানে ঝাপসা অবস্থা পার হইয়া স্মৃটিতর হইয়া উঠিয়াছে সেখানে কোনো অংশেই তাহা লেশমাত্র মধুর নহে। -- শিক্ষকদের মধ্যে একজনের কথা আমার মনে আছে, তিনি এমন কুৎসিত ভাষা ব্যবহার করিতেন যে, তাহার প্রতি অশ্রদ্ধাবশত তাহার কোনো প্রশ্নেরই উত্তর করিতাম না । সম্বৎসর তাহার ক্লাসে আমি সকল ছাত্রের শেষে নীরবে বসিয়া থাকিতাম। যখন পড়া চলিত তখন সেই অবকাশে পৃথিবীর অনেক দুরূহ সমস্যার মীমাংসচেষ্টা করিতাম। একটা সমস্যার কথা মনে আছে। অস্ত্ৰহীন হইয়াও শক্রকে কী করিলে যুদ্ধে হারানো যাইতে পারে, সেটা আমার গভীর চিন্তার বিষয় ছিল । ঐ ক্লাসের পড়াশুনার গুঞ্জনধ্বনির মধ্যে বসিয়া ঐ কথাটা মনে-মনে আলোচনা করিতাম, তাহা আজও আমার মনে আছে ?” হিতবাদী পত্রিকার দুপ্তপ্রাপ্যতা-বশতঃ রচনাবলীর বর্তমান খণ্ডে মুদ্রিত গল্পগুলির পাঠ প্ৰথম গল্পসংগ্ৰহ “ছোট গল্প ও গল্পগুচ্ছের পূর্বসংস্করণগুলির সাহায্যে সংশোধিত হইয়াছে। রচনাবলীর এই খণ্ডে সংকলিত নিম্নলিখিত পাচটি গল্প। ১২৯৮ সালের অগ্রহায়ণ-চৈত্র এই পাচ মাসে সাধনা মাসিক পত্রে প্রথম প্ৰকাশলাভ করে । বর্তমান গ্রন্থে প্ৰত্যেক রচনার শেষে সাধনায় প্রকাশের কাল মুদ্রিত হইয়াছে। ১৮ দ্রষ্টব্য, প্ৰবাসী, কার্তিক ১৩৪৮ । ১৯ ১৮৯১ খৃষ্টাব্দে মে মাসের শেষ হইতে কৃষ্ণকমল ভট্টাচার্যের সম্পাদনায় সাপ্তাহিক পত্রের প্রকাশ আরম্ভ इ23 । 甲 br8V