প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ষোড়শ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১১৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Wh অরুণ-আলোয় শুকতারা গেল মিলিয়ে । কবীর বসেছেন তার প্রাঙ্গণে, কাপড় বুনছেন আর গান গাইছেন গুন গুন স্বরে। রামানন্দ বসলেন পাশে, কণ্ঠ তার ধরলেন জড়িয়ে । কবীর ব্যস্ত হয়ে বললেন, প্রভু, জাতিতে আমি মুসলমান, আমি জোল, নীচ আমার বৃত্তি । রামানন্দ বললেন, ‘এতদিন তোমার সঙ্গ পাই নি বন্ধু, তাই অস্তরে আমি নগ্ন, চিত্ত আমার ধুলায় মলিন, আজ আমি পরব শুচিবস্ত্র তোমার হাতে— আমার লজ্জা যাবে দূর হয়ে। শিষ্যেরা খুজতে খুজতে এল সেখানে, ধিক্কার দিয়ে বললে, “এ কী করলেন প্ৰভু ! রামানন্দ বললেন, ‘আমার ঠাকুরকে এতদিন যেখানে হারিয়েছিলুম আজ তাকে সেখানে পেয়েছি খুজে । সুর্য উঠল আকাশে আলো এসে পড়ল গুরুর আনন্দিত মুখে । [ অগ্রহায়ণ ১৩৩৯ ] রঙরেজিনী শঙ্করলাল দিগ্‌বিজয়ী পণ্ডিত । শাণিত তার বুদ্ধি শুেনপাখির চঞ্চুর মতে, বিপক্ষের যুক্তির উপর পড়ে বিদ্যুদবেগে— তার পক্ষ দেয় ছিন্ন করে, ফেলে তাকে ধুলোয়।