প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ষোড়শ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২২১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চিরকুমার-সভা ২১৩ চন্দ্রবাবু। এ-সমস্ত সামাজিকতায় সভার কার্যের ব্যাঘাত করে, তাতে সন্দেহ নেই। রসিক। আচ্ছা, পরীক্ষা করে দেখুন, মিষ্টান্নে যদি সভার কার্য রোধ হয় তা হলে— বিপিন। ( মৃদুস্বরে ) তা হলে ভবিষ্যতে নাহয় সভাট বন্ধ রেখে মিষ্টান্নটা চালালেই হবে । 枣 শ্ৰীশ । আস্থন রসিকবাবু। আপনি উঠছেন না যে ? রসিক। রোজ রোজ যেচে এবং মাঝে মাঝে কেড়ে খেয়ে থাকি, আজ চিরকুমারসভার সভ্যরূপে আপনাদের সংসৰ্গগৌরবে কিঞ্চিৎ উপরোধের প্রত্যাশায় ছিলুম, কিন্তু— শৈলবালা। কিন্তু আবার কী রসিকদাদা। তুমি যে রবিবার করে থাক, আজ তুমি কিছু খাবে নাকি । রসিক । দেখছেন মশায় ! নিয়ম আর-কারও বেলায় নয়,কেবল রসিকদাদার বেলায় । না, বিলং বলং বাহুবলম্ । উপরোধ-অনুরোধের অপেক্ষা করা নয়। বিপিন । ( চারটিমাত্র ভোজনপত্রে দেখিয়া ) আপনি আমাদের সঙ্গে বসবেন না ? শৈলবালা । না, আমি পরিবেষণ করব । শ্ৰীশ । সে কি হয়। শৈলবালা । আমাকে পরিবেষণ করতে দিন, খাওয়ার চেয়ে তাতে আমি ঢের বেশি খুশি হব। শ্ৰীশ রসিকবাবু, এটা কি ঠিক হচ্ছে। | রসিক । ভিন্নরুচিৰ্হি লোকঃ । উনি পরিবেষণ করতে ভালোবাসেন, আমরা আহার করতে ভালোবাসি, এরকম রুচিভেদে বোধ হয় পরস্পরের কিছু সুবিধা আছে। সকলের অtহার শৈলবালা। চন্দ্রবাবু, ওটা মিষ্টি, ওটা আগে খাবেন না, এই দিকে তরকারি আছে। জলের গ্লাস খুজছেন ? এই-যে গ্লাস । চন্দ্রবাবুর পাতে আম ছিল তিনি সেটাকে ভালোরূপ আয়ত্ত করিতে পারিতেছিলেন ন— অনুতপ্ত শৈল তাড়াতাড়ি তাহ কাটিয়া সহজসাধ্য করিয়। দিল । যে সময়ে যেটি অবিস্ত্যক আস্তে আস্তে হাতের কাছে জোগাইয়৷ দিয়া তাহার ভোজনব্যাপারটি নির্বিগ্ন করিতে লাগিল চন্দ্রবাবু। শ্ৰীশবাবু, স্ত্রীসভ্য নেওয়া সম্বন্ধে আপনি কিছু বিবেচনা করেছেন ? ঐশ। ভেবে দেখতে গেলে ওতে আপত্তির কারণ বিশেষ নেই, কেবল সমাজের আপত্তির কথাটা অামি ভাবি ।