প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ষোড়শ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২৫০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


২৪২ |l রবীন্দ্র-রচনাবলী শ্ৰীশ। অক্ষয়বাৰু আছেন বেশ রসিকবাবু, ওঁর স্ত্রীই বুঝি বড়ো বোন তার রসিক । পুরবালা । বিপিন । ( নিকটে আসিয় ) কী নাম বললেন । রসিক । পুরবাল । বিপিন। তিনিই বুঝি সব চেয়ে বড়ে ? রসিক । হা । বিপিন। সব-ছোটোটির নাম ? রসিক । নীরবালা । শ্ৰীশ । আর নৃপবালা কোনটি। রসিক । তিনি নীরবালার বড়ে । শ্ৰীশ । তা হলে নৃপবালাই হলেন মেজো । বিপিন। আর নীরবালা ছোটো । শ্ৰীশ । পুরবালার ছোটো নৃপবালা । বিপিন । র্তার ছোটো হচ্ছেন নীরবালা । রসিক । (স্বগত) এরা তো নাম জপ করতে শুরু করলে। আমার মুশকিল। আর তো হিম সহ্য হবে না, পালাবার উপায় করা যাক । বনমালীর প্রবেশ বনমালী। এই-যে আপনারা এখানে। আমি আপনাদের বাড়ি গিয়েছিলুম। শ্ৰীশ । এইবার আপনি এখানে থাকুন, আমরা বাড়ি যাই । বনমালী। আপনার সর্বদাই ব্যস্ত দেখতে পাই । বিপিন। তা, আপনাকে দেখলে একটু বিশেষ ব্যস্ত হয়েই পড়ি । বনমালী ৷ পাচ মিনিট যদি দাড়ান-— শ্ৰীশ। রসিকবাবু, একটু ঠাণ্ড বোধ হচ্ছে না ? রসিক। আপনাদের এত ক্ষণে বোধ হল, আমার অনেক ক্ষণ থেকেই বোধ হচ্ছে । বনমালী। চলুন-না, ঘরেই চলুন-না। শ্ৰীশ । মশায়, এত রাত্রে যদি আমার ঘরে ঢোকেন তা হলে কিন্তু— বনমালী। যে আজ্ঞে, আপনারা কিছু ব্যস্ত আছেন দেখছি, তা হলে আর-এক সময় হবে ।