প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ষোড়শ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২৯৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চিরকুমার-সভা २b”¢ এসেছ ? জেনেশুনে, ইচ্ছাপূর্বক ? রসিক। না না, তুমি ভুল করছ অক্ষয় । অক্ষয় । আবার ভুল ? আজ কি সকলেরই ভুল করবার দিন হল নাকি — গান ভুলে ভুলে আজ ভুলময় । ভুলের লতায় বাতাসের ভুলে ফুলে ফুলে হোক ফুলময় । আনন্দ-ঢেউ ভুলের সাগরে উছলিয়া হোক কুলময়। রসিক । এ কী, বড়োমা আসছেন যে ! অক্ষয়। আসবারই তে কথা। উনি তো কুমারটুলির ঠিকানায় যাবেন না জগত্তারিণীর প্রবেশ ঐশ ও বিপিনের ভূমিষ্ঠ হইয় প্রণাম দুইজনকে দুই মোহর দিয়া জগত্তারিণীর আশীৰ্বাদ । জনাস্তিকে অক্ষয়ের সহিত জগত্তারিণীর আলাপ অক্ষয় । মা বলছেন, তোমাদের আজ ভালো করে খাওয়া হল না, সমস্তই পাতে পড়ে রহল । শ্ৰীশ । আমরা দুবার চেয়ে নিয়ে খেয়েছি। বিপিন। যেটা পাতে পড়ে আছে ওটা তৃতীয় কিস্তি । শ্ৰীশ । ওটা না পড়ে থাকলে আমাদেরই পড়ে থাকতে হত । জগত্তারিণী । ( জনাস্তিকে ) তা হলে তোমরা ওঁদের বসিয়ে কথাবার্তা কও বাছা, আমি আসি । [ প্রস্থান রসিক । না, এ ভারী অন্যায় হল । * অক্ষয় । অন্যায়টা কী হল । রসিক। আমি ওঁদের বার বার করে বলে এসেছি যে, ওঁরা কেবল আজ আহরটি করেই ছুটি পাবেন, কোনোরকম বধবন্ধনের আশঙ্কা নেই । কিন্তু— শ্ৰীশ। ওর মধ্যে কিন্তুটা কোথায় রসিকবাবু। আপনি অত চিন্তিত হচ্ছেন কেন। রসিক। বলেন কী শ্ৰীশবাবু, আপনাদের আমি কথা দিয়েছি যখন— বিপিন। তা বেশ তো, এমনিই কী মহাবিপদে ফেলেছেন। শ্ৰীশ । মা আমাদের যে আশীৰ্বাদ করে গেলেন আমরা যেন তার যোগ্য হই । রসিক। না না, শ্ৰীশবাবু, সে কোনো কাজের কথা নয়। আপনারা যে দায়ে পড়ে ভদ্রতার খাতিরে—