প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ষোড়শ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৩০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রবীন্দ্র-রচনাবলী কিনে পড় কবিতা আরাম-কেদারায় ব’সে । চোখ বুজে কান পেতে শোন না ; শোনা হলে কবিকে পরিয়ে দাও না বেলফুলের মালা, দোকানে পাচ সিকে দিয়েই থালাস ১ ও ভাত্র ১৩৩৯ পুকুর-ধারে দোতলার জানলা থেকে চোখে পড়ে পুকুরের একটি কোণা) ভাদ্রমাসে কানায় কানায় জল । জলে গাছের গভীর ছায়া টলটল করছে সবুজ রেশমের আভায় । তীরে তীরে কলমি শাক অার হেলঞ্চ । ঢালু পাড়িতে সুপারি গাছ ক’টা মুখোমুখি দাড়িয়ে। এ ধারের ডাঙায় করবী, সাদা রঙন, একটি শিউলি ; দুটি অযত্বের রজনীগন্ধায় ফুল ধরেছে গরিবের মতে বঁtথারি-বাধা মেহেদির বেড়া, তার ও পারে কলা পেয়ারা নারকেলের বাগান ; আরো দূরে গাছপালার মধ্যে একটা কোঠাবাড়ির ছাদ, উপর থেকে শাড়ি ঝুলছে । মাথায় ভিজে চাদর জড়ানো গা-খোলা মোট মাতুষটি ছিপ ফেলে বসে আছে বাধা ঘাটের পৈঠাতে, ঘণ্টার পর ঘণ্টা যায় কেটে । বেলা পড়ে এল । rį বৃষ্টি-ধোওয়া আকাশ, বিকেলের প্রৌঢ় আলোয় বৈরাগ্যের মানত ।