প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ষোড়শ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৪১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পুনশ্চ - \రి এক মুহূর্তে মেঘের জ্বল বুক ফুলিয়ে হু হু করে ছুটে আসে তাদের কোণ ছেড়ে । বঁধের জল হয়ে গেল কালে, বটের তলায় নামল থমথমে অন্ধকার । দূর বনের পাতায় পাতায় বেজে ওঠে ধারাপতনের ভূমিকা । দেপতে দেখতে ঘনবৃষ্টিতে পাণ্ডুর হয়ে আসে । সমস্ত আকাশ, মাঠ ভেসে যায় জলে । বুড়ে। বুড়ে গাছগুলো আলুথালু মাতামাতি করে ছেলেমামুষের মতো ; ধৈর্য থাকে না তালের পাতায়, বাশের ডালে । একটু পরেই পালা হল শেষ— আকাশ নিকিয়ে গেল কে । কৃষ্ণপক্ষের কৃশ চাদ যেন রোগশয্যা ছেড়ে ক্লাস্ত হাসি নিয়ে অঙ্গনে বাহির হয়ে এল । মন বলে, এই আমার যত দেপার টুকরে। চাই নে হারাতে । আমার সত্তর বছরের খেয়ায় কত চলতি মুহূর্ত উঠে বসেছিল, তারা পার হয়ে গেছে অদৃশ্বে । তার মধ্যে দুটি-একটি কুঁড়েমির দিনকে পিছনে রেখে যাব ছন্দে গাথ কুঁড়েমির কারুকাজে, তারা জানিয়ে দেবে আশ্চর্য কথাটি একদিন আমি দেখেছিলেম এই সব-কিছু। ৪ ভাদ্র ১৩৩৯ تم حد ة