প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ষোড়শ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৪৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পুনশ্চ। \రిg পাশের থেকে আমি দেখি বসে বসে কেমন একটি স্বর দিয়েছে চার দিকে । আপনাকে ও আপনি জানে না । যেখানে ওর অন্তর্যামীর আসন পাতা, সেইখানে তার পায়ের কাছে রয়েছে কোন ব্যথা-ধূপের পাত্রপানি । সেখান থেকে দোয়ার আভাস চোখের উপর পড়ে, চাদের উপর মেঘের মতো— হাসিকে দেয় একটুখানি ঢেকে। গলার স্বরে কী করুণা লাগে ঝাপস হয়ে । ওর জীবনের তানপুর যে ওই স্বরেতেই বাধা, সেই কথাটি ও জানে না । চলায় বসায় সব কাজেতেই ভৈরবী দেয় তান— কেন যে তার পাই নে কিনার । “ তাই তো আমি নাম দিয়েছি কোমল গান্ধার— যায় না বোঝা যখন চক্ষু তোলে বুকের মধ্যে আমন ক’রে কেন লাগায় চোথের জলের মিড় । ১৩ ভাদ্র ১৩৩৯ আজ এই বাদলার দিন, ' এ মেঘদূতের দিন নয় । । এ দিন অচলতায় বাধা । মেঘ চলছে না, চলছে মা হাওয়া, টিপিটপি বৃষ্টি । ঘোমটার মতো পড়ে আছে দিনের মুখের উপর।